আজীবন নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছেন বক্সিং কোচ মান্নান

স্পোর্টস লাইফ, প্রতিবেদক গোল্ড কোস্ট কমনওয়েলথ গেমস ২০১৮ তে বক্সিং কোচ কাজী আব্দুল মান্নান এর ভুলে খেলায় অংশ গ্রহন করতে পারেনি বাংলাদেশের দুই বক্সার! এ ঘটনায় অস্ট্রেলিয়া থেকে বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনে কোচ মান্নানকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠে। 

সে সময় যে ধারণা করা হয়েছিল তাই হতে যাচ্ছে সামনে। বক্সিং কোচ কাজী আব্দুল মান্নানকে আজীবন নিষিদ্ধের সুপারিশ করেছে তদন্ত কমিটি। সেই সঙ্গে থাকতে পারে আর্থিক জরিমানাও। জানিয়েছেন ফেডারেশনের কর্তারা।

বক্সিংয়ের কোচ কাম ম্যানেজার আব্দুল মান্নানের গাফিলতিতে কমনওয়েলথ গেমসে রিংয়েই নামা হয়নি বাংলাদেশের দুই বক্সার রবিন মিয়া (৬০ কেজি) এবং আল আমিনের (৬৪ কেজি)।

নিয়ম অনুযায়ী ইভেন্টের আগে ম্যানেজার্স মিটিংয়ে থাকা বাধ্যতামূলক হলেও রহস্যজনক কারণে সেই মিটিংয়ে ছিলেন না মান্নান! আর এর খেসারত দিতে হয় দুই বক্সারকে।

গোল্ড কোস্ট ট্র্যাজেডি নিয়ে এরইমধ্যে রিপোর্ট জমা দিয়েছে তদন্ত কমিটি। এরই মধ্যে আত্মপক্ষ সমর্থন করেছেন মান্নান, তবে তদন্ত কমিটির মন গলাতে পারেননি।

ইমেজ সংকট কাটিয়ে উঠতে এরই মধ্যে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে ফেডারেশনের নব নির্বাচিত কমিটি। জুনে মঙ্গোলিয়ায় উলান-বাটার কাপের পরপরই থাইল্যান্ডে ওপেন বক্সিং টুর্নামেন্ট। নবেম্বরে ভারতের আইবা উইমেন্স ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নেবে বাংলাদেশ। টুর্নামেন্টে কোচ ও বক্সার পাঠানোয় কঠোর হচ্ছে ফেডারেশন।

২০ বক্সার নিয়ে রোববার থেকে শুরু হচ্ছে দীর্ঘমেয়াদী প্রস্তুতি ক্যাম্প। শনিবার (১৯মে) বক্সাররা ফেডারেশনে রিপোর্ট করবেন। 

Print Friendly, PDF & Email