আজ শেষ হচ্ছে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল, পুরস্কার তুলে দিনে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ

স্পোর্টস লাইফ, প্রতিবেদক ‘নেত্রকোনার বারহাট্টা থেকে যে মহাযজ্ঞ শুরু হয়েছে, তার চূড়ান্ত রুপ পাবে আজ রোববার (২৩ডিসেম্বর) ২০১৮। যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের ফুটবলার বাছাইয়ের এই মহতী উদ্যোগ এখন শেষ পর্যায়ে। আজ রোববার  দুপুর আড়াই টায় শুরু হবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবলের (অনূর্ধ্ব-১৭) ফাইনাল খেলা। 

শিরোপার জন্য লড়বে রংপুর ও রাজশাহী বিভাগীয় দল। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ফাইনাল খেলা শেষে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দলের হাতে ট্রফি ও প্রাইজমানি তুলে দেবেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ।

এই টুর্নামেন্ট থেকে বাছাইকৃত ৪৩ জনকে বিকেএসপিতে এবং সেরাদের সেরা চারজনকে ব্রাজিল পাঠানো হবে বিশেষ প্রশিক্ষণের জন্য’, শনিবার (২২ডিসেম্বর) এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয় এমপি। এ সময় সাবেক তারকা ফুটবলার বাদল রায় এবং যুব ও ক্রীড়া সচিব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ সহ অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

গত ১ সেপ্টেম্বর দেশব্যাপী পাঁচ হাজার পাঁচশ’ দলের প্রায় ২৫ হাজার প্রতিভাবান ফুটবলারদের অংশগ্রহনে শুরু হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট (অনূর্ধ্ব-১৭) টুর্নামেন্ট।

উপজেলা,জেলা, বিভাগ ও জাতীয় পর্যায়ে অনুষ্ঠিত টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দলের জন্য ট্রফি ও আর্থিক পুরস্কারসহ পদক দেয়া হয়ে।

এবার ফাইনাল খেলার পালা। যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ বলেন, ‘দিনকে দিন দেশের ফুটবল গৌরব হারিয়েছে। আমরা সেই গৌরব ফেরাতে চাই। ফুটবলের মানকে কাঙ্খিত পর্যায়ে নিয়ে যেতে চাই। তাই যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় এমন ব্যতিক্রম উদ্যোগ নিয়েছে।’

সাবেক তারকা ফুটবলার বাদল রায়ের কথা, ‘ফুটবলকে আবার জাগাতে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের এই
উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়। আশাকরি প্রত্যেক বছর ধারাবাহিকভাবে এই টুর্নামেন্টের
আয়োজন করা হবে।’

উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়ের কথা, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্রীড়াপ্রেমী। তাই ক্রীড়াঙ্গণের প্রতি উনার নজর সব সময় থাকে। উনার আগ্রহেই মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে আমরা প্রত্যেকটি উপজেলায় শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম তৈরী করছি। যা অনেকটাই শেষ পর্যায়ে। আসলে ফুটবলের পুনর্জাগনের জন্য বিশেষ নজর দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।’

তিনি যোগ করেন, ‘এই টুর্নামেন্ট থেকে বাছাই করা ৪৩ জনকে বিকেএসপিতে এক বছরের অনুশীলন করানো হবে। তাছাড়া সেরা চারজনকে এক বছরের উন্নত প্রশিক্ষণের জন্যপাঠানো হবে ফুটবলের দেশ ব্রাজিলে।

নেত্রকোনার বারহাট্টায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ছিলেন বাংলাদেশস্থ ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত ওলিভেইরা জুনিয়র। উনিই আমাদের কথা দিয়েছিলেন চারজন ফুটবলারের উন্নত প্রশিক্ষণের জন্য।’ এবারের আসরের চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দলকে ট্রফি ছাড়াও যথাক্রমে এক লাখ ও পঞ্চাশ হাজার টাকার প্রাইজমানি দেয়া হবে।

টুর্নামেন্টের শিরোপা জয়ের স্বপ্ন দেখছেন দু’দলের অধিনায়কই। সময় বলবে এই প্রতিযোগিতার প্রথম ট্রফি উঠবে কোন দলের হাতে। 

উল্লেখ ফুটবল প্রেমীরা খেলাটি বিনা টিকিটেই দেখতে পারবেন। 

Print Friendly, PDF & Email