ইতিহাস লেখার অপেক্ষায় মারিয়া-তহুরারা

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কআর মাত্র একটি ম্যাচ। জয় পেলেই ইতিহাস। এমন সুযোগের সামনেই আছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল দল। শনিবার (১৮ আগস্ট) বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায় ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশের কিশোরীরা। আর এই ম্যাচে জয় পেলেই ইতিহাস।

গেলো বছর সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জয়ী বাংলাদেশ। তবে তা ছিল দেশের মাটিতে। একই টুর্নামেন্ট, ফাইনালের প্রতিপক্ষও সেই ভারত। তবে পার্থক্য আছে ভেন্যুতে। এবার এই ফাইনাল গড়াচ্ছে ভুটানের থিম্পুতে। আর বিদেশের মাটিতে এই ম্যাচ জিততে পারলেই ইতিহাস লিখবে মারিয়া-তহুরারা।

পুরো টুর্নামেন্ট দুর্দান্ত খেলেছে বাংলাদেশের কিশোরীরা। প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানকে ১৪-০ গোলে হারিয়ে শুরু। এরপর নেপালকে ৩-০ গোলে হারায় তারা। সেমিফাইনালে স্বাগতিক ভুটানকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দেয়। তিন ম্যাচে ২২ গোলের বিপক্ষে হজম করতে হয়নি একটি গোলও। এ থেকে অন্তত এটুকু আন্দাজ করাই যায়, বাংলাদেশ দলের রক্ষণভাগ কতোটা  কতটা মজবুত।

মাত্রই ৮ মাস আগে শিরোপা জয়ী দলটি মাঠে নামবে একই লক্ষ্যে। আগেরবার কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে ভারতকে ১-০ গোলে হারিয়ে প্রথম বারের মতো টুর্নামেন্টের শিরোপা জেতে বাংলাদেশের মেয়েরা। ৮ মাসের ব্যবধানে আবারও একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষ মাঠে নামা বাড়তি আত্মবিশ্বাস এনেছে কিশোরীদের।নিজেদের আত্মবিশ্বাস ধরে রাখতে বল ছুঁয়ে প্রতিক্ষাও করে নিয়েছেন।

ভারতও যে আগেরবারের প্রতিশোধ নিতে তৈরি হয়ে থাকবে তা বলাই বাহুল্য। গেলো আসরে বাংলাদেশের বিপক্ষে দুইবার হারার জ্বালা এত সহজে ভুলবে না তারা। ৩ ম্যাচে প্রতিপক্ষকে দিয়েছে ১৫ গোল দিয়ে বিপরীতে ১টি গোল খেয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে ভারতের মেয়েরা।

পরিসংখ্যান বলছে এ আসরে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। এখন শুধু অপেক্ষা পুরো টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের পারফরম্যান্সের একটি ‘রিক্যাপ’ দেখার। তবেই শিরোপা ফিরবে ঘরে।

Print Friendly, PDF & Email