উইম্বলডন থেকে ফেদেরারের বিদায়

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ক৬-২ গেমের জয়ে শুরু প্রথম সেট, তাতে রজার ফেদেরারের আরেকটি সহজ জয়েরই ইঙ্গিত ছিল। কিন্তু পাল্টে যাওয়া দৃশ্যপটে লেখা হলো অন্যকিছু। যেখানে বীরের বেশে সেমিফাইনালে উঠে গেলেন কেভিন অ্যান্ডারসন, আর কোয়ার্টার ফাইনালেই থেমে গেলেন ফেদেরার।

উইম্বলডন থেকে নবম শিরোপা জেতার লক্ষ্যে নেমেছিলেন সুইস তারকা। তা আর হলো না, অ্যান্ডারসনের বিপক্ষে হেরে গেছেন তিনি ২-৬, ৬-৭ (৫-৭), ৭-৫, ৬-৪, ১৩-১১ গেমে।

অথচ কী চমৎকারভাবেই না ফেদেরার শুরু করেছিলেন এবারের উইম্বলডন। টানা সেট জিতে প্রতিদ্বন্দ্বীদের উড়িয়ে দিয়ে পেয়েছেন দুর্দান্ত সব জয়। কোয়ার্টার ফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকার অ্যান্ডারসনও যে পাত্তা পাবেন না, সেটাই ধরে নেওয়া হয়েছিল। প্রথম সেট ৬-২ গেমে জিতে নেওয়ায় ওই ধারণাই স্পষ্ট হচ্ছিল। কিন্তু লড়াকু অ্যান্ডারসন তা হতে দেবেন কেন, প্রথম দুই সেট হারের পরও ঠিকই নিশ্চিত করেন সেমিফাইনাল।

সোয়া ৪ ঘণ্টার লড়াইয়ে কতবার যে ম্যাচের রঙ পাল্টেছে। কখনও মনে হয়েছে ফেদেরার উঠছেন শেষ চারে, কখনও আবার অ্যান্ডারসনের দিকে গড়িয়েছে ম্যাচ। কেউ কাউকে ছাড় না দেওয়ায় ম্যাচ গড়িয়েছিল পঞ্চম সেটে। সেখানেও সমান সমান থাকায় ফল নিষ্পত্তির জন্য চলতেই থাকে ম্যাচ। একবার ফেদেরার জেতেন, তো পরের সেটে সমতা ফেরান দক্ষিণ আফ্রিকান তারকা। শেষ পর্যন্ত ফেদেরার হার মানেন ১৩-১১ গেমে।

প্রথম সেট সুইস তারকা সহজে জিতলেও দ্বিতীয় সেটে কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতা দাঁড় করিয়ে অ্যান্ডারসন নিয়ে যান টাইব্রেকারে। এই পর্ব ফেদেরার জিতে নেন ৭-৬ (৭-৫) গেমে। তবে তৃতীয় সেটে অ্যান্ডারসন ৭-৫ গেমে জেতার পর চতুর্থ সেট নিজের করে নেন ৬-৪ গেমের জয়ে। এরপর ফল নির্ধারণী সেটে চলতেই থাকে তাদের লড়াই। শেষ পর্যন্ত ১৩-১১ গেমের জয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত হয় দক্ষিণ আফ্রিকান তারকার।

Print Friendly, PDF & Email