এক পেনাল্টি নিয়ে এত বিতর্ক! এবার যুক্ত হলেন মারাডোনা

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কএক পেনাল্টি নিয়ে এত বিতর্ক! রিয়াল মাদ্রিদ-জুভেন্টাস চ্যাম্পিয়নস লিগ কোয়ার্টার ফাইনাল ফিরতি লেগ ম্যাচের ৯৩ মিনিটে সেই পেনাল্টির পক্ষে-বিপক্ষে মতামত দেওয়া থামছেই না।

অনেকেই পক্ষে-বিপক্ষে মত দিয়েছেন। এবার সেই বিতর্কে যোগ দিলেন ডিয়েগো ম্যারাডোনাও। আর্জেন্টাইন কিংবদন্তির রায়, এটা পেনাল্টি ছিল না। 

প্রথম লেগে রিয়ালের কাছে ৩-০ গোলে হারের পর ফিরতি লেগে ৩ গোল শোধ করে দুর্দান্ত ‘কামব্যাক’ করেছিল জুভেন্টাস। কিন্তু যোগ করা সময়ে ‘জুভ’দের বক্সে রিয়ালের লুকাস ভাসকুয়েজকে পেছন থেকে ধাক্কা মারেন মেধি বেনাশিয়া।

পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি মাইকেল অলিভার। স্পটকিক থেকে গোল করে রিয়ালকে সেমিফাইনালে তোলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।

তারপর থেকে বিতর্ক চলছেই পেনাল্টিটা ঠিক না ভুল? ন্যাপোলির হয়ে একসময় ইতালিয়ান লিগ মাতানো ম্যারাডোনার মতে, রেফারি সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি। বিশ্বকাপজয়ী ৫৭ বছর বয়সী এই কিংবদন্তি বলেন, ‘না, এটা পেনাল্টি ছিল না।’ ম্যাচের সেই মুহূর্তটির ব্যাখ্যাও দেন তিনি, ‘রোনালদো হেড করার পর লুকাসকে সুযোগটা নিতেই হতো। কারণ সে ছিল বুফনের পাশেই এবং বেনাশিয়া পেছন থেকে এসেছে।’

ম্যারাডোনা এরপর ভাসকুয়েজের পড়ে যাওয়ার ভূমিকাটুকু ব্যাখ্যা করে বলেন, ‘সে যা করেছে আমি হলে ঠিক সেটাই করতাম। সুযোগটা লুফে নিয়ে নিজেকে ছুড়ে ফেলেছে।’

পেনাল্টির এই সিদ্ধান্তটা যে ‘জুভ’ সমর্থকদের অনেকদিন পোড়াবে তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, রেফারি মাইকেল অলিভার এরই মধ্যে তুরিনে সবার ‘শত্রু’ বনে গেছেন। ছাড় দেয়নি ইতালিয়ান সংবাদমাধ্যমগুলোও।

অলিভার ম্যাচটা রিয়ালের দিকে টেনেছেন এ ব্যাপারটা প্রমাণে তাঁরা উঠেপড়ে লেগেছে। আর তাই অলিভারের স্ত্রী লুসি অলিভার কবে মাদ্রিদে গিয়ে শহরটির প্রশংসা করেছেন কিংবা রিয়ালের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর প্রশংসা করে টুইট করেছেন এসব ব্যাপারও ফলাও করে প্রকাশ করেছে।

Print Friendly, PDF & Email