এসকোবারের মতো সানচেজকেও হত্যার হুমকি

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ক১৯৯৪ বিশ্বকাপে আত্মঘাতী গোল দিয়ে কলম্বিয়াকে হারানোর অপরাধে দেশে ফেরার পর হত্যা করা হয় আন্দ্রেস এসকোবারকে। এবার কার্লোস সানচেজকেও এমন পরিণতির হুমকি দিয়েছে দুষ্কৃতিকারীরা।

বিষয়টি বেশ গুরুত্বের সঙ্গে খতিয়ে দেখছে কলম্বিয়ান পুলিশ। দুষ্কৃতিকারীদের দ্রুত খুঁজে বের করতে আলাদা তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে।

জাপানের বিপক্ষে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ ২-১ গোলে হেরে মূল্যবান ৩ পয়েন্ট জলাঞ্জলি দিয়েছে কলম্বিয়া। সে ম্যাচে মাত্র ৩ মিনিটের মাথায় লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন কার্লোস সানচেজ, যা কিনা বিশ্বকাপ ইতিহাসে দ্বিতীয় দ্রুততম।

জাপানের শিনজি কাগাওয়াকে থামাতে গিয়েই লাল কার্ড পান সানচেজ। তার ওই ভুলে কলম্বিয়া পরিণত হয় ১০ জনের দলে। ম্যাচের বাকি সময়ে অনেক চেষ্টা করে গেলেও ১১ জনের জাপানের সাথে আর পেরে ওঠেনি হোসে পেকারম্যানের শিষ্যরা।

সেদিন মাঠে প্রায় ২৫,০০০ কলম্বিয়ান উপস্থিত ছিলেন। অবিশ্বাস্য এই হারে মন খারাপ করেই মাঠ ছাড়েন তারা। এরপর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে সানচেজের এই কাণ্ডে নিজেদের ক্ষোভ প্রকাশ করে কলম্বিয়ানরা। কয়েকজন তো আরও একটু এগিয়ে মৃত্যু হুমকিও দিয়ে বসেন।

১৯৯৪ বিশ্বকাপে কলম্বিয়ার জালে আত্মঘাতী গোল দেওয়ায় আন্দ্রেস এসকোবারকে হত্যা করার ঘটনা ঘটেছিল। তাই সানচেজকে দেওয়া মৃত্যু হুমকিকে গুরুত্ব দিতেই হচ্ছে কলম্বিয়ান পুলিশকে।

কেউ কেউ আবার এসকোবারের সাথে সানচেজের ছবি দিয়ে লিখেছেন- যদি আত্মঘাতী গোল দেওয়ায় এসকোবারকে হত্যা করা হয়, তবে ম্যাচ হারানোর দায়ে তো সানচেজকে পিস পিস করে কেটে ফেলা উচিত। এমন হুমকি তো আমলে না নিয়ে উপায় নেই!

Print Friendly, PDF & Email