কলকাতার দাপটে উড়ে গেল দিল্লি

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কদাঁড়াতেই পারলো না দিল্লি ডেয়ারডেভিলস। কলকাতা নাইট রাইডার্সের দাপটে উড়ে গেছে তারা। ব্যাট হাতে শাসনের পর দুর্দান্ত বোলিংয়ে কলকাতা পেয়েছে ৭১ রানের বিশাল জয়।

নিতিশ রানার ঝড়ো হাফসেঞ্চুরির সঙ্গে আন্দ্রে রাসেলের টর্নেডো ইনিংসে কলকাতা নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে স্কোরে জমা করে ২০০ রান। বিশাল এই লক্ষ্যে খেলতে নেমে ১৪.২ ওভারেই দিল্লি গুটিয়ে গেছে ১২৯ রানে।

জয় দিয়ে এবারের আইপিএল শুরু করেছিল কলকাতা। কিন্তু পরের দুই ম্যাচে হেরে আত্মবিশ্বাসে চিড় ধরে তাদের। ঘরের মাঠে দিল্লির বিপক্ষে লড়াইটা ছিল তাই তাদের জন্য ঘুরে দাঁড়ানোর মঞ্চ। ঘুরে তারা দাঁড়িয়েছে দাপুটে জয়ে।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালো ছিল না দিনেশ কার্তিকদের। ওপেনিংয়ে পুরোপুরি ব্যর্থ সুনিল নারিন। মাত্র ১ রান করে এই স্পিনার প্যাভিলিয়নে ফেরার পর ইনিংস মেরামত শুরু করেন ক্রিস লিন ও রবিন উথাপ্পা।

দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে তারা যোগ করেন ৫৫ রান। উথাপ্পা ছিলেন বিধ্বংসী, ১৯ বলে ২ চার ও ৩ ছক্কায় করেন ৩৫ রান। আর লিন আউট হওয়ার আগে ২৯ বলে করে যান ৩১ রান। তাদের আউটের পরই শুরু হয় আসল তাণ্ডব।

একদিকে রানা চালিয়েছেন ব্যাট, অন্যদিকে রাসেল খেলেছেন টর্নেডো ইনিংস। ক্যারিবিয়ান এই হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান ১২ বলে খেলে যান ৪১ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস। কোনও বাউন্ডারি নেই তার, ৬টিই মেরেছেন ওভার বাউন্ডারি।

রানাও ছিলেন বিধ্বংসী, হাফসেঞ্চুরি পূরণ করে ৩৫ বলে খেলে যান ৫৯ রানের অসাধারণ এই ইনিংস। ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা এই ব্যাটসম্যান যা সাজিয়েছিলেন ৫ চার ও ৪ ছক্কায়। এর মাঝে অধিনায়ক কার্তিক ১০ বলে করেন ১৯ রান।

২০১ রানের কঠিন লক্ষ্যে খেলতে নেমে ভেঙে পড়ে দিল্লির ব্যাটিং লাইনআপ। জেসন রয় (১), গৌতম গম্ভীর (৮), শ্রেয়াস আইয়ার (৪) সবাই ব্যর্থ। দলীয় সর্বোচ্চ ৪৭ রানের ইনিংস খেলেছেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। আর ৪৩ রান আসে ঋষব পান্টের ব্যাট থেকে।

দিল্লিকে গুঁড়িয়ে দেওয়ার পথে বল হাতে সুনিল নারিন মাত্র ১৮ রান দিয়ে পেয়েছেন ৩ উইকেট। সমান উইকেট শিকার কুলদীপ যাদবেরও।

Print Friendly, PDF & Email