চট্টগ্রাম আবাহনীর কাছে মোহামেডানের হার

স্পোর্টস লাইফ, প্রতিবেদক শনিবার (১৮নভেম্বর) বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ ফুটবলে  মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড কে ১-০ গোলে হারিয়েছে চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেড। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দিনের প্রথম ম্যাচের প্রথমার্ধেই জয়সূচক গোলটি করে বন্দরনগরীর দল।

গোলটি করেন জয়ী দলের তারকা মিডফিল্ডার জাহিদ হোসেন। আর গোলটি হজম করেন বিজিত দলের গোলরক্ষক মামুন খান। মজার ব্যাপার হচ্ছে দুজনেই হচ্ছেন নিজ দলের অধিনায়ক!

নিজেদের ত্রয়োদশ ম্যাচে এটা চট্টগ্রাম আবাহনীর দশম জয়। ৩২ পয়েন্ট নিয়ে আগের মতোই ধরে রেখেছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থানটি। পক্ষান্তরে ‘ব্ল্যাক এ্যান্ড হোয়াইট’ খ্যাত মোহামেডানের এটা সমান ম্যাচে ষষ্ঠ হার। ১৭ পয়েন্ট নিয়ে তারাও আছে আগের মতোই ষষ্ঠ স্থানে (১২ দলের মধ্যে)।

১০ মিনিটে বল নিয়ে তৌহিদুল আলম সবুজ পেনাল্টি বক্সে ঢুকে পড়লেও মোহামেডানের ডিভেন্স ভেঙ্গে গোল করতে পারেননি (প্রথম লেগে এই সবুজের একমাত্র গোলেই চট্টগ্রাম আবাহনীর কাছে ১-০ তে হেরেছিলো সাদা-কালোরা)।

১১ মিনিটে মামুনুল ইসলামের দুর্দান্ত এক ফ্রি কিক ছিল প্রায় গোল, বক্সে লাফিয়ে উঠে হেড নেন জাহিদ হোসেন। কিন্তু গোলরক্ষক মামুন খান বল ক্লিয়ার করায় গোলবঞ্চিত হয় আবাহনী। তবে পরের মিনিটেই ভাগ্য সুপ্রসন্ন হয় তাদের।

১২ মিনিটে মাঝমাঠে বল পান চট্টগ্রাম আবাহনীর এ্যাটাকিং মিডফিল্ডার মামুনুল ইসলাম। তিনি বা দিকের উইংয়ে বল বাড়ান আগুয়ান হাইতিয়ান মিডফিল্ডার লিওনেল সেইন্ট প্রিয়ক্সের উদ্দেশ্যে। প্রিয়ক্স বল ধরে ডি-বক্সের ভেতরে ঢুকে পড়ে গড়ানো ক্রস দেন। সেই ক্রসে হাঁটু গেড়ে বসে পড়ে শট নেন অধিনায়ক-মিডফিল্ডার জাহিদ হোসেন। মোহামেডানের গোলরক্ষক-অধিনায়ক মামুন খানকে ফাঁকি দিয়ে বল চলে যায় জালে (১-০)। উল্লাসে ফেটে পড়ে বন্দরনগরীর দলটি।

লিড নেয়ার পর কৌশলে পরিবর্তন আনেন আবাহনীর কোচ সাইফুল বারী টিটু। ছোট ছোট ব্লক তৈরি করে দলকে খেলতে থাকেন।

শেষ পর্যন্ত আর গোলের দেখা পায়নি কোন দল। তাই মোহামেডানের বিপক্ষে ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে চট্টগ্রাম আবাহনী।

Print Friendly, PDF & Email