চাকিংয়ে ধরা শহীদ আফ্রিদির ভাতিজা

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কশহীদ আফ্রিদি, পাকিস্তান তথা বিশ্ব ক্রিকেটেরই জনপ্রিয় এক নাম। পাকিস্তানের জাতীয় দলে দীর্ঘসময় খেলেছেন এই অলরাউন্ডার। তবে চাচার মতো ওত নাম ডাক পাওয়া হয়নি ইরফান আফ্রিদির। পাকিস্তান ছেড়ে পারি জমিয়েছিলেন উগান্ডায়। সেখানকারই জাতীয় দলে খেলেন এই স্পিনার।

শহীদ আফ্রিদি সম্পর্কে চাচা হলেও বয়সের পার্থক্য খুব বেশি নয় ভাতিজা ইরফানের। করাচিতে জন্ম নেয়া এই স্পিনার ২০১৩ সালে ২৮ বছর বয়সে উগান্ডায় পারি জমান। এখন তার বয়স ৩৩। আফ্রিদির ৩৮।

২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে কাতারের বিপক্ষে উগান্ডার হয়ে অভিষেক হয় ইরফান আফ্রিদির। তিনি আবার অফস্পিন, লেগস্পিন দুটোই করতে জানেন। ওমানে তার দল বর্তমানে বিশ্ব ক্রিকেট লিগের তৃতীয় বিভাগে খেলছে।

সেখানে খেলতে গিয়েই চাকিং করে ধরা পড়েছেন আফ্রিদির ভাতিজা। অ্যাকশন অবৈধ ঘোষণা করে ইরফান আফ্রিদিকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বোলিং নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে আইসিসি।

যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে ম্যাচের সময় উগান্ডা অধিনায়ক রজার মুকাসাকে ডেকে আম্পায়ার জানান, ইরফানের বল চাকিং হচ্ছে। যদিও আম্পায়ারের এমন অভিযোগ শুনে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন উগান্ডা অধিনায়ক।

তিনি উল্টো অভিযোগ করেন, আম্পারের বিতর্কিত এই সিদ্ধান্তে ম্যাচ থেকে মনোযোগ সরে গিয়েছিল তাদের, যে ম্যাচটি যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ৫৪ রানে হেরে যায় উগান্ডা।

Print Friendly, PDF & Email