ডোপ টেস্টে পজিটিভ পাকিস্তানের শেহজাদ

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কপাকিস্তান ক্রিকেট ও বিতর্ক যেন পাশাপাশি হাঁটে। একটি ইস্যু থামতে না থামতেই সামনে আসে নতুন কোনও বিতর্ক। এবার পাকিস্তান ক্রিকেট শিরোনামে ডোপ টেস্টের খবরে। দেশটির ওপেনার আহমেদ শেহজাদ ডোপ টেস্টে ‘পজিটিভ’ প্রমাণিত হয়েছেন।

ডোপ টেস্টের এবারের ইস্যু নিয়ে আলোচনা চলছে অনেকদিন থেকে। মাস দুয়েক আগে ঘরোয়া ৫০ ওভারের লিগ ‘পাকিস্তান কাপ’-এ ডোপ টেস্টে যেতে হয়েছিল শেহজাদকে।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) এ ব্যাপারে কোনও মন্তব্য না করলেও ২০ জুন সংবাদমাধ্যমে ছাপা হয়েছিল, শেহজাদ ডোপ টেস্টে পজিটিভ প্রমাণিত হয়েছেন। এরপর পিসিবি টুইটারে ডোপের বিষয়টি নিশ্চিত করলেও খেলোয়াড়ের নাম গোপন রাখে। অবশেষে মঙ্গলবার তারা নিশ্চিত করেছে, খেলোয়াড়টি আহমেদ শেহজাদ।

এই ওপেনারকে ইতিমধ্যে নোটিশের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই নোটিশ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তিনি ‘সাময়িক নিষিদ্ধ’ হয়েছেন। তবে নিজের পক্ষে যুক্তি উপস্থানের জন্য সুযোগ পাচ্ছেন শেহজাদ, আগামী ১৪ দিনের মধ্যে জবাব দিতে হবে তাকে।

পিসিবি শেহজাদের নাম নিশ্চিতের সঙ্গে জানিয়েছে, আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী পাকিস্তানের অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সির কাছ থেকে ফলের ব্যাপারে সাড়া না পাওয়া পর্যন্ত তাদের নাম প্রকাশ করার ‘ক্ষমতা’ নেই। সব কাজ সম্পন্ন হওয়ার পরই তারা ঘোষণা করেছে শেহজাদের নাম।

বোর্ডের কাছ থেকে নোটিশ পাওয়া মানে সাময়িক বরখাস্ত শেহজাদ এবং আন্তর্জাতিক ও কোনও বোর্ডের অধীনে হওয়া টুর্নামেন্টে খেলার যোগ্যতা হারিয়েছেন। তবে পাকিস্তান ওপেনার তার ‘বি’ নমুনা পরীক্ষার আবেদন করতে পারবেন এবং সেখানে যদি তিনি ‘পজিটিভ’ প্রমাণিত না হন, তাহলে সঙ্গে সঙ্গে উঠে যাবে তার নিষেধাজ্ঞা। আর এইসব করতে হবে ১৪ দিনের মধ্যে। 

Print Friendly, PDF & Email