দক্ষিণ আফ্রিকাকে উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কপ্রথম ম্যাচে হেরে গিয়েছিল বাংলাদেশের উদীয়মান মেয়েরা। কিন্তু পরে দুই ম্যাচে স্বাগতিকদের ওপর স্পষ্ট প্রাধান্য বিস্তার করে খেলেছে সফরকারী বাংলাদেশ ইমার্জিং নারী ক্রিকেট দল। সর্বশেষ আজ ছিল তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচ। এই ম্যাচে বলতে গেলে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকাকে উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ।

প্রিটোরিয়ার গ্রোয়েঙ্কলুপ ওভালে অনুষ্ঠিত সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৯ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। হাতে ছিল তখনও ৩২ বল (৫.২ ওভার)। বাংলাদেশের শারমিন আক্তার নির্বাচিত হন ম্যাচ সেরা।

দক্ষিণ আফ্রিকান ইমার্জিং মেয়েদের ছুড়ে দেয়া ১৭৭ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে মাত্র মুর্শিদা খাতুনের উইকেট হারাতে হয় বাংলাদেশকে। তাও তিনি হয়েছিলেন রানআউট। দলীয় ৭৫ রানের মাথায় রান নিতে গিয়ে আউট হয়ে যান মুর্শিদা। আউট হওয়ার আগে ৪৯ বলে তিনি করেন ৩১ রান।

মুর্শিদা রানআউটে কাটা পড়লেও বাকিরা আর উইকেট হারাননি। অধিনায়ক নার্গিস সুলতানাকে নিয়ে জয়ের বাকি কাজ শেষ করে আসেন আরেক ওপেনার শারমিন আক্তার। শেষ পর্যন্ত ৪৪.৪ ওভারেই ১৭৯ রান করে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় বাংলাদেশের ইমার্জিং স্কোয়াডের মেয়েরা।

১৩৭ বলে ৮৩ রানে অপরাজিত থেকে যান শারমিন আক্তার। ১০টি বাউন্ডারির মার মারেন তিনি। নার্গিস সুলতানা ৮৪ বলে করেন ৪৮ রান।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৭৬ রান সংগ্রহ করে দক্ষিণ আফ্রিকার ইমার্জিং দলের মেয়েরা। ত্রিশা চেট্টি করেন সর্বোচ্চ ৬৩ রান। এছাড়া রবিন শার্লি ৩৫ এবং তাজমিন ব্রিটস করেন ২৩ রান। বাংলাদেশের হয়ে ফাহিমা খাতুন ৩টি এবং খাদিজাতুল কুবরা নেন ২টি উইকেট।

প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার মেয়েরা ১৯৮ রান করলে বাংলাদেশ অলআউট হয়ে যায় ১৫১ রানে। হেরে যায় ৪৭ রানে। দ্বিতীয় ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার ৯ উইকেটে ২৩৮ রানের জবাব দিতে নেমে ৪ উইকেটে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। আজ তৃতীয় ম্যাচে তো জিতলো ৯ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে। ফলে ২-১ ব্যবধানে সিরিজই জিতে নিলো বাংলাদেশের মেয়েরা।

Print Friendly, PDF & Email