নতুন নিয়মে বিপিএলের সপ্তম আসর

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কনতুন চুক্তির পর নতুন নিয়মে মাঠে গড়াবে বিপিএলের সপ্তম আসর। চুক্তিবদ্ধ দলগুলো নতুন নিয়ম মেনে আগামী চার আসরে অংশ নেবে এই জমকালো টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে। রবিবার বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের জরুরি সভায় এসব বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) সপ্তম আসর শুরু হবে আগামী ডিসেম্বরে। টুর্নামেন্ট শুরুর দুই মাস আগে হবে নিলাম। যদিও এখনও ঠিক হয়নি টুর্নামেন্টের সপ্তম আসরে কোন কোন দল অংশ নেবে। তবে গভর্নিং কাউন্সিলের সভা শেষে জানা গেছে, এ মাসেই চূড়ান্ত হতে পারে অংশগ্রহণকারী দলের নাম ও সংখ্যা।

২০১৫ সালে বিপিএলের তৃতীয় আসরে চিটাগং ভাইকিংসের দায়িত্ব নিয়েছিল ডিবিএল গ্রুপ। তবে কাঙ্ক্ষিত সাফল্য পায়নি দলটি। এবার ডিবিএল গ্রুপ সরে দাঁড়িয়েছে বিপিএল থেকে। তাদের বাইরে রেখে নতুন দুটি দল চেয়ে ‘ইন্টারেস্ট অব এক্সপ্রেশন’ প্রকাশ করেছে গভর্নিং কাউন্সিল।

বিপিএলের বাকি ছয় দল খুলনা টাইটানস, ঢাকা ডায়নামাইটস, রংপুর রাইডার্স, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স, সিলেট সিক্সার্স ও রাজশাহী কিংসের মালিক পক্ষ নতুন করে চুক্তি করতে পারবেন। তবে তাদের কেউ চুক্তি না করলে আসবে অন্য হিসেব। সেক্ষেত্রে নতুন কেউ আগ্রহী হলে তাদের কাছে ফ্র্যাঞ্চাইজি বিক্রি করতে পারবে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। তখন দলের নামেও পরিবর্তন আসতে পারে।

এ প্রসঙ্গে বিসিবির পরিচালক মাহবুব আনাম বলেছেন, ‘এ মাসের মধ্যে চুক্তিপত্রের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবো আমরা। বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল সিদ্ধান্ত নেবে কয়টা দল অংশ নেবে এবার। আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে নেগোশিয়েট করার জন্য দলগুলোকে আমরা আমন্ত্রণ জানাবো। তারপরই জানা যাবে কারা বিপিএলে কন্টিনিউ করবে আর কারা করবে না। দুই পক্ষ সন্তুষ্ট হলে চার মৌসুমের জন্য চুক্তি নবায়ন করা হবে।’

২০১২ সালে বিপিএলের প্রথম আসরে অংশ নিয়েছিল ছয়টি দল। পরের বছর রংপুর রাইডার্স যুক্ত হলে দলের সংখ্যা দাঁড়ায় সাতে। ২০১৫ সালে তৃতীয় আসরে মালিকানা ছেড়ে দেওয়ায় অংশ নেয়নি খুলনা। তবে সেবার যুক্ত হয় নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। ২০১৬ সালে চতুর্থ আসরে খুলনা টাইটানস নামে নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি যোগ দিয়েছিল। তবে সেবার সিলেটের কোনও দল অংশ নেয়নি। ২০১৭ সালে সিলেট সিক্সার্স ফিরলেও নানা জটিলতায় বাদ যায় বরিশালের ফ্র্যাঞ্চাইজি। এ বছরের শুরুতে অনুষ্ঠিত ষষ্ঠ আসরেও বরিশালের কোনও দল ছিল না। 

এবার চট্টগ্রামের ফ্র্যাঞ্চাইজি সরে দাঁড়ালে বিপিএলে অংশ নিতে পারে ছয়টি দল। আবার চট্টগ্রামের সঙ্গে একটি নতুন দল যোগ হলে সংখ্যাটা দাঁড়াতে পারে আটে। মাহবুব আনাম এ বিষয়ে জানিয়েছেন, ‘ছয়টা ফ্র্যাঞ্চাইজিকে মিউচুয়াল অ্যাগ্রিমেন্টের জন্য চিঠি দেওয়া হয়েছে। পুরোনো দলগুলো চুক্তি করলে আর নতুন দুটি দল চুক্তিবদ্ধ হলে আটটি দল নিয়ে এবারের বিপিএল মাঠে গড়াবে। এ মাসেই জানা যাবে কয়টি দল অংশ নেবে সপ্তম আসরে। নতুন চুক্তিতে পুরোনো সব নিয়ম বাতিল হয়ে যাবে। নতুন নিয়ম অনুযায়ী শুরু হবে বিপিএলের পরবর্তী আসর।’

Print Friendly, PDF & Email