পাকিস্তানে জাতীয় দল পাঠানোর ইচ্ছে নেই বিসিবির

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কসোমবার ইমার্জিং কাপ খেলতে পাকিস্তান যাচ্ছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল। তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান জানিয়েছেন, এখনই পাকিস্তানে জাতীয় দল পাঠানোর কোনও ইচ্ছে নেই।

কয়েক বছর ধরেই বাংলাদেশকে সফরের আমন্ত্রণ জানিয়ে আসছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। ভবিষ্যত সফরসূচি অনুযায়ী, ২০২০ সালের জানুয়ারিতে পাকিস্তান সফরে যাওয়ার কথা বাংলাদেশের। তার আগে জাতীয় দল পাকিস্তানে যাবে কিনা প্রশ্নে সংবাদ মাধ্যমকে বিসিবি সভাপতি বলেছেন, ‘গত বছর লাহোরে একটি টি-টোয়েন্টি খেলেছিল শ্রীলঙ্কা।

এর আগে ২০১৫ সালে আমাদের নারী দল যখন পাকিস্তানে যায়, তখন ওদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ভালো ছিল। নিরাপত্তা নিয়ে কোনও হুমকি না থাকলে বা আইসিসির কাছ থেকে ইতিবাচক ইঙ্গিত পেলে আমরা ভেবে দেখতে পারি। তবে এখনই পাকিস্তানে কোনও আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার ইচ্ছে নেই আমাদের।’

ইমার্জিং কাপের ‘বি’ গ্রুপের খেলা হবে পাকিস্তানে। বাংলাদেশ-পাকিস্তান ছাড়া এই গ্রুপের অন্য দুই দল হংকং ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ নিয়ে নাজমুল হাসানের ব্যাখ্যা, ‘ভারতের মতো বাংলাদেশও সমস্যার কথা বললে তো খেলাই হবে না! এটা ঠিক যে পাকিস্তানে নিরাপত্তাজনিত কিছু সমস্যা আছে। আমরা অবশ্য পাকিস্তানের নিরাপত্তা নিয়ে আলোচনা করেই সিদ্ধান্তটা নিয়েছি। আমরা দলের সঙ্গে নিরাপত্তা বিষয়ক অভিজ্ঞ ব্যক্তিদের পাঠাবো।’

মিরপুর টেস্টে ইনিংস ব্যবধানে জয়ের সুবাদে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশ করেছে বাংলাদেশ। বোর্ড প্রধান তাই দারুণ খুশি, ‘এই টেস্টে মনে রাখার মতো জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। ভাবতে পারিনি এত সহজে আমরা জিতবো। আমাদের ব্যাটসম্যানরা প্রত্যেকে রান করেছে। এই প্রথম আমরা কোনও দলকে ইনিংস ব্যবধানে হারালাম। এই জয় ভোলা যাবে না।’   

টেস্টের পর ওয়ানডেতেও সাফল্য পেতে আশাবাদী তিনি, ‘ওয়ানডেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ শক্তিশালী দল। তবে ওয়ানডেতে আমাদের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স ভালো। আশা করি, ৫০ ওভারের ক্রিকেটেও আমরা ভালো করবো।’

Print Friendly, PDF & Email