বিশ্বকাপে যাচ্ছেন শাদাব খান

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কতিনি যে পাকিস্তানের বিশ্বকাপ দলে থাকছেন, সেটা অনুমিতই ছিল। সুযোগও পেলেন, কিন্তু রক্তে হেপাটাইটিস ‘সি’ ভাইরাস পাওয়ায় শঙ্কায় পড়ে যায় শাদাব খানের বিশ্বকাপে থাকা। তবে খুশির খবর পেয়েছেন এই অলরাউন্ডার। শরীরে আর কোনও ভাইরাস নেই তার, বিশ্বকাপ খেলতে তিনি ‍পুরোপুরি ফিট।

বিশ্বকাপের মঞ্চে নামার আগে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ খেলছে পাকিস্তান। সেজন্য তারা চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা করেনি, ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) কাছে ১৫ জনের ‘প্রাথমিক দল’ দিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। এই দলে আছেন ২০ বছর বয়সী শাদাব।

কিন্তু ইংল্যান্ডের সিরিজ শুরুর আগে তার রক্তে ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়ায় পাকিস্তান বিশ্রাম দেয় তাকে। বদলি হিসেবে দলের সঙ্গে পাঠানো হয় লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহকে। তবে ইংলিশদের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডের টসের সময় অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ নিশ্চিত করেছিলেন, বিশ্বকাপে খেলার জন্য ফিট শাদাব। এবার পিসিবিও নিশ্চিত করেছে, দলের সঙ্গে যোগ দিতে ইংল্যান্ডের পথে যাত্রা করবেন এই অলরাউন্ডার।

স্বভাবতই উচ্ছ্বসিত শাদাব, ‘ব্লাড টেস্ট নেগেটিভ এসেছে জেনে ভীষণ আনন্দিত। এখন আমি প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে ফিরতে পারব। আমার মধ্যে সবসময়ই বিশ্বাস ছিল, এই ভাইরাল সংক্রমণ থেকে আমি সেরে উঠব এবং বিশ্বকাপে খেলতে পারব।’

বৃহস্পতিবার লন্ডনের উদ্দেশে পাকিস্তান ছাড়ার কথা শাদাবের। সেখানে ডাক্তার দেখানোর পর ২০ মে ব্রিস্টলে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন তিনি। ২৪ মে আফগানিস্তান ও ২৬ মে বাংলাদেশের বিপক্ষে বিশ্বকাপের দুটি ওয়ার্ম-আপ ম্যাচ আছে পাকিস্তানের, সেখানে তার খেলাটা নির্ভর করছে ‘ফিটনেস ও টিম ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্তের ওপর’।

পাকিস্তানের বিশ্বকাপ মিশন শুরু হবে ৩১ মে। নিজেদের প্রথম ম্যাচে সরফরাজদের প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ। 

Print Friendly, PDF & Email