বৈষম্যের শিকার সেরেনা

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ক‘কালো’ বলেই বারবার ডোপ টেস্ট করা হয়, এমনই দাবী টেনিস তারকা সেরেনা উইলিয়ামসের। এন্টি-ডোপ কর্তৃপক্ষের দিকে এমন বর্ণ বৈষম্যের অভিযোগই তুলেছেন তিনি।

এর আগেও বর্ণ বৈষম্যের শিকার হয়েছেন মার্কিন এই টেনিস তারকা। তবে এবার ডোপ টেস্ট করতে গিয়ে এমন ঘটনা ঘটায় বেশ বিরক্ত হয়েছেন ২৩ বারের গ্রান্ড স্লামজয়ী এ তারকা।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্টের এক সংবাদ মাধ্যম প্রকাশ করেছে, শুধু ২০১৮ সালেই পাঁচবার সেরেনাকে ডোপ পরীক্ষা দিতে হয়েছে। তিনি যে, নিষিদ্ধ কোনো মাদক বা ওষুধ গ্রহণ করেননি তার প্রমাণ দিতে হয়েছে বারবার। এতবার ডোপ টেস্টের সামনে পড়ে সেরেনার মনে হচ্ছে তার সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণ করছে টেনিস ফেডারেশন।

বিরক্তি প্রকাশ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে সেরেনা লিখেছেন, ‘সময় এখন এমন হয়েছে যে, যখন ইচ্ছা ড্রাগ টেস্টে ডাকা হবে এবং শুধু সেরেনাকেই ডাকা হবে। এটা ইতোমধ্যেই প্রমাণিত যে, খেলোয়াড়দের মধ্যে আমাকেই সবচেয়ে বেশি ডোপ টেস্ট দিতে হয়েছে। এটাকে বৈষম্য বলা যায়? আমার মনে হয় অবশ্যই।’

মাত্র ১০ মাস আগে কন্যা অলিম্পিয়ার জন্ম দিয়েছেন সেরেনা। নিজেকে পুরোপুরি ফিট করে তোলার মাঝেই এমন পরীক্ষা তার মনোযোগ নষ্ট করছে বলেও মনে করেন সেরেনা।

Print Friendly, PDF & Email