মালদ্বীপের নিউ রেডিয়ান্টকে উড়িয়ে দিলো বসুন্ধরা কিংস

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ক : মালদ্বীপ চ্যাম্পিয়ন নিউ রেডিয়ান্টকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে বসুন্ধরা কিংস। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের কোনো ক্লাব মালদ্বীপ চ্যাম্পিয়নদের জালে এক হালি গোল দেবে, এ বিশ্বাস নিয়ে কেউ খেলা দেখতে বসে বলেও মনে হয় না। কিন্তু শুক্রবার (২১সেপ্টেম্বর) ২০১৮ নীলফামারীতে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে তাই করে দেখাল নবাগত ক্লাব বসুন্ধরা কিংস।

ম্যাচের সবচেয়ে আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিল ড্যানিয়েল কলিন্দ্রেস। কোস্টারিকার জার্সিতে রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলা এই স্ট্রাইকারের বাংলাদেশে অভিষেকটা কেমন হয়, সেটা দেখার আগ্রহ ছিল। অভিষেকে একেবারে সবাইকে চমকে দিয়েছেন বলা যাবে না, তবে তিনি যে বিশ্বকাপে খেলা একজন, সেটা তাঁর পায়ে বল গেলেই প্রমাণ করেছেন বারবার।

দলের এক হালি গোলের পরও তাঁর নামের পাশে কিছু নেই। কিন্তু হাইতিয়ান স্ট্রাইকার বেলফোর্টকে দিয়ে গোল করিয়ে গোল উৎসবের শুরুটা এনে দিয়েছেন তিনিই।

এর পর কলিন্দ্রেসের অভিষেকের মঞ্চে আলো কেড়ে নিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের দুই স্ট্রাইকার তৌহিদুল আলম সবুজ ও মাহবুবুর রহমান সুফিল। অন্য গোলটি গাম্বিয়ান স্ট্রাইকার উসমান জ্যালোর।

এই জয়ে সবচেয়ে বেশি কৃতিত্বটা বুঝি দিতে হবে বসুন্ধরার স্প্যানিশ কোচ অস্কার ব্রুজনকে। গত মৌসুমে রেডিয়ান্টের কোচ ছিলেন। আর তাঁর অধীনে এএফসি কাপে আবাহনী লিমিটেডকে দু ম্যাচেই হারিয়েছিল মালদ্বীপ ক্লাবটি।

ঢাকায় প্রথম ম্যাচে ১-০ গোলে জয়ের পর দ্বিতীয় ম্যাচে মালেতে আকাশি নীলদের উড়িয়ে দিয়েছিল ৫-১ গোলে। সময়ের পালাবদলে দল পরিবর্তন করে বসুন্ধরার ডাগ আউটে দাঁড়িয়ে উড়িয়ে দিল রেডিয়ান্টকেই।

১৮ মিনিটে গোলের সূচনা করেছেন হাইতিয়ান স্ট্রাইকার বেলফোর্ট। বাঁ প্রান্ত থেকে ড্যানিয়েলের বাড়ানো বলে গোলের খাতা খুলেছেন হাইতিয়ান এই স্ট্রাইকার। চার মিনিট পরেই অধিনায়ক তৌহিদুল আলম সবুজকে দিয়ে গোল করিয়েছেন।

তাঁর ক্রস থেকে হেডে বল জালে জড়িয়েছেন সবুজ। এর পরে ম্যাচে ফেরার সুযোগ পেয়েছিল রেডিয়ান্ট। কিন্তু স্পটকিক থেকে গোল করতে ব্যর্থ হন অধিনায়ক আলী ফাসির। সদ্য সমাপ্ত সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে গোল করেছিলেন আলী ফাসির।

দ্বিতীয়ার্ধে আরও চড়া বসুন্ধরা। দুই বদলি ফুটবলারের সৌজন্যে ৬০ মিনিটে মধ্যে বসুন্ধরার নামের পাশে ৪-০। ৫১ মিনিটে ৩-০ করেছেন চ্যাম্পিয়নস লিগের বাছাইপর্বে গোল করা অভিজ্ঞতাসম্পন্ন উসমান। এর নয় মিনিট পরেই ৪-০ করেছেন জাতীয় দলের স্ট্রাইকার সুফিল। ৬৩ মিনিটে ব্যবধান কমিয়েছেন কিপসন অথুহেরি।

এক সপ্তাহও হয়নি বাংলাদেশ থেকে সাফ ফুটবলের শিরোপা জিতে দেশে ফিরেছে মালদ্বীপ। সে দলেরই নিয়মিত ছয়জন ছিলেন রেডিয়ান্টের জার্সিতে।

Print Friendly, PDF & Email