শিরোপা উৎসবের ম্যাচে ড্র করল বসুন্ধরা কিংস

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কম্যাচ শুরুর ঘণ্টাখানেক আগে মুষলধারে বৃষ্টি নামে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে। কিন্তু সেই বৃষ্টি দমাতে পারেনি বসুন্ধরা কিংস সমর্থকরদের উত্তেজনা। শিরোপা জয় উদযাপনের লক্ষ্যে এবং প্রিয় দলকে সমর্থন জানাতে ম্যাচের কয়েক ঘন্টা আগে থেকে দলে দলে সাদার ওপর লাল জার্সি ও ক্লাবের পতাকা হাতে স্টেডিয়ামে হাজির হতে থাকে বসুন্ধরা কিংসের বিভিন্ন পেশার সমর্থকরা।

শনিবার (০৩ আগস্ট) বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলের ২০১৮-১৯ মৌসুমের পর্দা নামার দিনে মুখোমুখি হয় বসুন্ধরা কিংস ও চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেড। শেষ ম্যাচে এগিয়ে যাওয়ার পরও ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে অস্কার ব্রুজনের শিষ্যদের। শিরোপা উৎসবের দিনে লিগের নবাগত বসুন্ধরা ১-১ ব্যবধানে ড্র করেছে বন্দর নগরীর আবাহনীর সঙ্গে।

যদিও লিগে দুই ম্যাচ বাকি থাকার আগে শিরোপা নিশ্চিত করে ফেলা বসুন্ধরার জন্য ম্যাচটি ছিল আনুষ্ঠানিকতার। কিন্তু উৎসব শুরুর আগে অন্যরকম ফুটবল প্রদর্শনী দেখালো লিগে প্রথমবারের চ্যাম্পিয়ন হওয়া দলটি।

রেফারির বাঁশি বাজার পর থেকে তারা যে আক্রমণাত্মক ফুটবলের পসরা সাজালো তা বজায় রাখলো নির্ধারিত সময় পর্যন্ত। ৭ মিনিটে বাঁ-দিক থেকে ক্ষিপ্র গতিতে আক্রমণ চালান বসুন্ধরার অধিনায়ক দ্যানিয়েল কলিন্দ্রেস সোলেরা। কোস্টারিকান মিডফিল্ডারের আক্রমণ প্রতিহত করেন আবাহনী ডিফেন্ডার মুফতা লাওয়াল।

তবে গোলের জন্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি বসুন্ধরার। ১৫ মিনিটে মার্কোস ভিনিসিয়াস ডি কস্তা সুয়ারেস ডি সিলভার গোলে এগিয়ে যায় তারা। ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডারের চিপে বোকা বনে যান আবাহনী ডিফেন্ডার লাওয়াল ও গোলরক্ষক মোহাম্মদ নেহাল।

অবশ্য পরের মিনিটে বসুন্ধরার জালে বল জড়িয়ে দেয় চট্টগ্রাম আবাহনী। তবে তা বাতিল হয়ে যায় অফসাইডে।

৪১ মিনিটে পুনরায় গোলের সুযোগ পেলেও ব্যর্থ হন সুয়ারেস। ৪৪ মিনিটে বসুন্ধরার গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকো ফাউল করে বসেন আবাহনীর নচোয়া কিংসলেকে। ৪৫ মিনিটে আরমা টেগোর পেনাল্টি শট থেকে ব্যবধান ১-১ করে বিরতিতে যায় দু’দল। তখন পুনরায় শুরু হয় বৃষ্টি।

দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণ ধরে রাখে বসুন্ধরা। কিন্তু বৃষ্টি ভেজা ঘাসে সুবিধা করতে পারেনি কোনো দল। দুই গোল পোস্টের সামনের কাদা পানি আটকে দেয় খেলোয়াড়দের শট। ফলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই মাঠ ছাড়তে হয় তাদের।

এর আগে বসুন্ধরা শিরোপা নিশ্চিত করেছিল ২৫ আগস্ট, নীলফামারী শেখ কামাল স্টেডিয়ামে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে। তবে তার আগেই চ্যাম্পিয়ন হতে পারতো তারা। কিন্তু টানা ১৪ ম্যাচ জয়ের পর শেখ রাসেলের বিপক্ষে হেরে যাওয়ায় তা আর হয়ে ওঠেনি।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে একমাত্র দল হিসেবে প্রথমবার অংশগ্রহণ করে শিরোপা জিতেছে বসুন্ধরা। এর আগে তার অভিষেকেই স্বাধীনতা কাপ জিতে। অভিষেকেই দুই শিরোপা জয়ের কীর্তি গড়ার রেকর্ড নেই বাংলাদেশের আর কারও।

প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের রোল অব অনার:

২০১৮-১৯: বসুন্ধরা কিংস
২০১৭-১৮: আবাহনী লিমিটেড
২০১৬: আবাহনী লিমিটেড
২০১৪-১৫: শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব
২০১৩-১৪: শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব
২০১২-১৩: শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র
২০১২: আবাহনী লিমিটেড
২০১০-১১: শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব
২০০৯-১০: আবাহনী লিমিটেড
২০০৮-০৯: আবাহনী লিমিটেড
২০০৭: আবাহনী লিমিটেড

Print Friendly, PDF & Email