সাত ম্যাচ পর জয়ের মুখ দেখলো অস্ট্রেলিয়া

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কটানা সাত ম্যাচ হারের পর অবশেষে ওয়ানডেতে জয়ের মুখ দেখেছে অস্ট্রেলিয়া। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বহুল আকাঙ্ক্ষিত সেই জয়টাও এলো ঠিক সাত রানেই।

গত নয়টা মাস অজি সমর্থকদের হৃদয়ে তুমুল রক্তক্ষরণ, তীব্র কষ্ট আর হারের যন্ত্রণার অবশেষে অবশেষে অবসান ঘটল। নতুন এক পর্বে মার্কাস স্টইনিসের জাদুতেই এলো সেই জয়। আর এই জয় যে কতোটা স্বস্তি এনে দিয়েছে অজিদের মনে তা বুঝা যাবে যদি জানা যায় যে, ঠিক ২৮৮ দিন পর ৫০ ওভারের ম্যাচে জয়ের দেখে পেলো একসময়ের বিশ্বসেরা দলটি!

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান ডেভিড পিভার, প্রধান নির্বাহী জেমস সাদারল্যান্ড, সিনিয়র কর্মকর্তা প্যাট হাওয়ার্ড, সাবেক অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ, সহ-অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার, কোচ ড্যারেন লেহম্যান এমন সব নাম অজি ক্রিকেটের আকাশে এখন অবর্তমান। এমন ছন্নছাড়া অবস্থায় এই জয়টা অজি ক্রিকেটে অক্সিজেনের মতো কাজ করবে তাতে কোনো সন্দেহ নেই।

আজ শুক্রবার (৯ নভেম্বর) অ্যাডিলেডে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে ৪৮.৩ ওভারে ২৩১ রানেই গুটিয়ে যায় স্বাগতিকরা। এই নিয়ে গত ৮ ম্যাচের মধ্যে ৭টিতেই পুরো ৫০ ওভার ব্যাটিং করতে ব্যর্থ হলো অজিরা। 

ব্যাট হাতে অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ ৬৩ বলে ৪১ রানের ইনিংস খেলেছেন। অ্যালেক্স ক্যারি (৭২ বলে ৪৭) ও ক্রিস লিন (৪৪ বলে ৪৪) ব্যাট হাতে লড়াই করলেও শেষদিকে একমাত্র শন মার্শ (২৬ বলে ২২) ছাড়া বাকিরা ফের ব্যর্থ।

দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার ডোয়াইন প্রোটিয়াস ১০ ওভারে ৩২ রান খরচ করে ৩ উইকেট নিয়েছেন। এছাড়া ৫৩ রানে ৩ উইকেট পেয়েছেন কাগিসো রাবাদা আর ৩১ রানে ২ উইকেট তুলে নিয়েছেন ডেল স্টেইন।

অল্প রানের টার্গেট আর অজিদের ফর্ম বিবেচনায় ম্যাচটা জিতে সিরিজ ২-০ করে ফেলবে প্রোটিয়ারা, এমনটাই মনে হচ্ছিলো। কিন্তু এদিন যেন জেতার জন্য পণ করেই নেমেছিলেন অজি ক্রিকেটাররা।

দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটিং ইনিংসের শুরুতেই ওপেনার কুইন্টন ডি কককে (৯) তুলে নেন অজি ফাস্ট বোলার মিচেল স্টার্ক। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে প্রোটিয়ারা। মাঝে অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস (৪৭) রানের নিয়ন্ত্রণ কাঁধে তুলে নেন। কিন্তু প্যাট কামিন্সের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন তিনি।

দলীয় ১৪২ রানে ডু প্লেসিস ফিরলেও ক্রিজে ছিলেন ডেভিড মিলার। ৭১ বলে ৩ চার ও ১ ছক্কায় তার ৫১ রানের ইনিংসটি শেষ হয় স্টইনিসের বলে। দলীয় ১৮৭ রানে মিলার অষ্টম উইকেট হিসেবে বিদায় নিলে লো অর্ডার ব্যাটসম্যান এনগিডি (২০ বলে ১৯*) ও ইমরান তাহির (১১ বলে ১১*) শেষদিকে যথাসাধ্য চেষ্টা করেও দলকে জেতাতে অসমর্থ হন। সেই সঙ্গে ৭ রানের জয় নিয়ে সিরিজে ১-১ সমতা আনতে সক্ষম হয় অস্ট্রেলিয়া।

বোলিংয়ে ১০ ওভার বল করে ৩৫ রান খরচে ৩ উইকেট তুলে নিয়েছেন স্টয়নিস। ২টি করে উইকেট পেয়েছেন স্টার্ক ও হ্যাজেলউড। তবে ১০ ওভারে মাত্র ২৭ রান খরচ করে ১ উইকেট পাওয়া কামিন্সের ভুমিকাও কম নয়।

ব্যাট হাতে ৪১ রান আর দারুণ নেতৃত্ব দিয়ে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হয়েছেন অ্যারন ফিঞ্চ।

Print Friendly, PDF & Email