৬.২১ মিলিয়ন মোবাইলে তৈরি টোকিও অলিম্পিকের পদক!

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কঠিক এক বছর পর শুরু হচ্ছে টোকিও ২০২০ অলিম্পিক। বিশ্বের সবচেয়ে বড় এই ক্রীড়াযজ্ঞের পদক ইতোমধ্যে উন্মোচিত করেছে আয়োজক কমিটি। যেখানে জয়ী অ্যাথলেটরা এই আসরে স্বর্ণ, রৌপ্য ও ব্রোঞ্জের পাশপাশি মোবাইল ফোনও তাদের গলায় পরবেন!

কোনো ধরনের মজা করা হচ্ছে না, এই আসরের সকল পদকই বানানো হয়েছে পুরোনো ফোনকে পুনঃব্যবহার করে। মানুষের দেওয়া ৭৮ হাজার ৮৯৫ টন বাতিলযোগ্য গেজেট নিষ্কাশন করে এই মূল্যবান ধাতু বের করা হয়েছে।

পদক তৈরির জন্য গেজেটগুলো থেকে মোট ৩২ কেজি স্বর্ণ, ৩ হাজার ৫০০ কেজি রৌপ্য ও ২ হাজার ২০০ কেজি ব্রোঞ্জ বের করা হয়েছে। দাবি করা হচ্ছে অলিম্পিকের ইতিহাসে এবারই প্রথম টেকসই পদক দেওয়া হচ্ছে।

এই পদকের ডিজাইনার ও পরিকল্পনাকারী জুনিছি কাওয়ানিশি। যিনি ৪০০ জনের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে এই ধারণা দিয়ে সফলতা পেয়েছেন।

এই পদক তৈরিতে জাপানের সাধারণ মানুষ ৬.২১ মিলিয়ন মোবাইল ফোন অনুদান হিসেবে দিয়েছেন। কেননা আগামী বছর নিজ দেশের মাটিতে হওয়া এই আসরে তারা তা ফিরিয়ে নিতে মরিয়া।

টোকিও ২০২০ পদকে বরাবরের মতো অলিম্পিকের প্রতীক হিসেবে পাঁচটি গোলাকার রিং রয়েছে। আছে গেমসের নাম। যেখানে স্বর্ণ পদকে ব্যবহার করা হয়েছে ৬ গ্রাম সোনা। রৌপ্য পদক পুরোটাই রূপার তৈরি। আর ব্রোঞ্জ পদকে রয়েছে মূল্যবান পিতল।

২০২০ সালের ২৪ জুলাই আসরটি অনুষ্ঠিত হবে।

Print Friendly, PDF & Email