জেবি বিপিএল ফুটবলে ফেনী-ব্রাদার্সের পয়েন্ট ভাগাভাগি

স্পোর্টস লাইফপ্রতিবেদক :  জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ফেনী সকার ক্লাবের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে ব্রাদার্স ইউনিয়ন। আর এই ড্র’য়ের ফলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে নিয়েছে দু’দল। ফেনীর হয়ে গোল করেন সুশান্ত ত্রিপুরা। আর ব্রাদার্সকে সমতায় ফেরান দলের হাইতিয়ান মিডফিল্ডার অগাস্টিন ওয়ালসন।

মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে ফেনী সকার ও ব্রাদার্স ইউনিয়নের মধ্যকার ম্যাচের প্রথমার্ধের পাঁচ মিনিটেই বিস্ময়ের জন্ম দেয় ফেনী সকার।

দলটির মিডফিল্ডার সুশান্ত ত্রিপুরা মাঝমাঝ মাঠ থেকে একা বল নিয়ে গোলবারের ৩৫ গজ বাইরে থেকে নিলেন বাঁ পায়ের লম্বা এক শট। আর সেই শটটি গোলরক্ষক উত্তম বড়ুয়ার মাথার উপর দিয়ে চুমু খেল জালে। ব্যাস, শুরুতেই ১-০ তে এগিয়ে যাওয়ায় উল্লাসে মেতে উঠলো পুরো ফেনী সকার ক্লাব শিবির।

তবে পিছিয়ে পড়াটা যেন কিছুতেই মেনে নিতে পারছিলো না ব্রাদার্স শিবির। তাই প্রথমার্ধেই সমতায় ফিরতে একের পর এক আক্রমB চালিয়ে গেছে। কিন্তু তাদের প্রতিটি আক্রমBই আছড়ে পড়েছে ফেনীর সুরক্ষিত রক্ষণ দেয়ালে।

ব্রাদার্সের তেমনই এক আক্রমণ দেখা গিয়েছিল ২৪ মিনিটে। আক্রমণভাগের খেলোয়াড়েরা প্রথমবারের মত প্রতিপক্ষের রক্ষণ ভেঙ্গে পেনাল্টি বক্স সীমানার ভেতরে ঢুকে পড়ে। তবে রক্ষণকে ফাঁকি দিলেও তারা পরাস্ত করতে পারেননি গোলরক্ষককে। কেননা গোলরক্ষক উসমান গনি ঝাঁপিয়ে পড়ে দলকে নিশ্চিত গোলের হাত থেকে রক্ষা করেন।

এই যাত্রায় বেঁচে গেলেও ফেনী বাঁচতে পারেনি ২৭ মিনিটে ব্রাদার্সের্ গোলসুচক আক্রমণ থেকে। দলের হাইতিয়ান মিডফিল্ডার অগাস্টিন ওয়ালসন ফেনীর রক্ষণভাগকে একা পরাস্ত করে গোলবারের বাঁ দিক দিয়ে ডান পায়ের জোড়ালো প্লেসিং শটে ব্রাদার্সকে ১-১ এ সমতায় ফেরান।

সমতায় ফেরার পর প্রথমার্ধেই এগিয়ে যেতে জোর প্রচেষ্টা চালিয়েছে দু’দল। কিন্তু নির্ধারিত সময় পর্যন্ত কেউই জালে বল জড়াতে না পারলে সমতা নিয়েই তাদের  বিরতিতে যেতে হয়।

বিরতি থেকে ফিরে ব্যবধান বাড়ানোর লড়াইয়ে আক্রমণ ভাগকে আরও শান দিয়ে একে অন্যের সীমানায় ঝাঁপিয়ে পড়ে ফেনী ও ব্রাদার্স। তবে এই প্রতিযোগিতায় ফেনীর আক্রমণ ছিল বেশ ক্ষুরধার।

এমনই ক্ষুরধার এক আক্রমন নিয়ে ৭৭ মিনিটে ফেনীর ঘানা ফরোয়ার্ড তুয়াম ফ্র্যাংক গিয়েছিলেন ব্রাদার্স গোলবারের একেবারের সামনে। কিন্তু সেখানে গোলরক্ষক উত্তম বড়ুয়া বাধার দেয়াল সৃষ্টি করলে এগিয়ে যাবার মিশনে ব্যর্থ হয় সকার।

ব্যবধান বাড়ানোর প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে ছিল না ব্রাদার্সও। তবে তাদের প্রতিটি আক্রমণেই ছিল অগোছালো আর শটগুলো ছিল বিলাসী। ফলে ম্যাচের নির্ধারিত সময় পর্যন্ত তারাও আর জালের দেখা না পেলে সমতা নিয়েই মাঠ ছাড়ে দু’দল।

Print Friendly, PDF & Email