প্রতিদিন আনারস খাবেন কেন?

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ক :খেতে সুস্বাদু আনারস পুষ্টিগুণের দিক থেকেও অনন্য। আনারস রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। সেই সঙ্গে হজম শক্তি বাড়ায় ও হাড় শক্ত করে।  আনারসে রয়েছে ভিটামিন সি, পটাসিয়াম, কপার, ম্যাঙ্গানিজ, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, বিটা-ক্যারোটিন, থায়ামিন, ভিটামিন বি৬, ফোলেট,  ফাইবার, ব্রোমেলিনসহ আরও অনেক ধরনের উপকারী উপাদান।

জেনে নিন আনারস খাওয়া জরুরি কেন-

  • আনারসে থাকা ব্রোমেলিন বাতের ব্যথা কমাতে পারে- এমনটাই বলেছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।  নিয়মিত আনারস খেলে তাই দূরে থাকতে পারবেন বাতের ব্যথা।
  • একটি আস্ত আনারস খেলে তা আমাদের শরীরে দৈনিক ভিটামিন সি বা অ্যাসকরবিক অ্যাসিড-এর চাহিদা অনেকাংশে পূরণ করতে পারে। ভিটামিন সি শ্বেত রক্ত কণিকার ক্ষমতা বাড়িয়ে নানারকম জীবাণু তো প্রতিরোধ করেই, একইসঙ্গে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হিসেবেও কাজ করে।
  • আনারস খেলে শরীরে প্রচুর পরিমাণে কোলাজেন  তৈরি হয়, যা কোষের কর্মক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে।
  • আনারস খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়রিয়াসহ বিভিন্ন ধরনের পেটের সমস্যা  কমে।
  • আনারসে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার রয়েছে যা  খাবার হজম করতে এবং বর্জ্য পদার্থ শরীর থেকে বের করে দিতে সাহায্য করে।
  • রক্তনালীতে জমে যাওয়া কোলেস্টেরল দূর করতে সাহায্য করে আনারস। এর ফলে সুস্থ থাকে আমাদের হৃদযন্ত্র।
  • আনারসে থাকা ব্রোমেলিন  বুকে সর্দি জমতে দেয় না। একইসঙ্গে সাইনাসের সমস্যাও রোধ করে।
  • আনারসে ক্যালসিয়ামের পরিমাণ খুব বেশি না থাকলেও ম্যাঙ্গানিজের রয়েছে প্রচুর পরিমাণে, যা আমাদের হাড়ের যত্নে দারুণ কাজ দেয়।
  • আনারসে উপস্থিত পটাসিয়াম রক্ত সঞ্চালন এবং রক্তনালীর স্থিতিস্থাপকতা বজায় রাখতে সাহায্য করে। যখন আমাদের শরীরে রক্ত নালীর প্রসারণ ঠিকভাবে হয়, তখন উচ্চ রক্তচাপের সম্ভাবনা  কমে যায়। এছাড়াও পটাসিয়াম রক্ত জমাট বাঁধতে দেয় না বলে রক্তনালীতে প্রতিবন্ধকতার আশঙ্কা কমে যায়। ফলে হৃদরোগ এবং স্ট্রোকের আশঙ্কা কমে।
Print Friendly, PDF & Email
শেয়ার