এবার স্পেশাল অলিম্পিক নিয়ে বাড়তি সতর্ক বাংলাদেশ

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কস্পেশাল অলিম্পিকে নিয়মিত অংশ নেয় বাংলাদেশ, পদকও পায় প্রত্যেক প্রতিযোগিতায়। তবে ২০১৫ ও ২০১৮ সালে দুজন প্রতিযোগীর পালিয়ে যাওয়ার ঘটনা ভীষণ বিব্রত করেছিল সারা দেশকে। এবার তাই ভীষণ সতর্ক বাংলাদেশের স্পেশাল অলিম্পিক কমিটি।

আগামী ১৪ মার্চ সংযুক্ত আরব-আমিরাতের আবুধাবিতে শুরু হতে যাওয়া স্পেশাল অলিম্পিক বিশ্ব সামার গেমসে বাংলাদেশের ১০৩ জন প্রতিযোগী ৯টি খেলায় অংশ নিচ্ছে। এবার বিদেশের মাটিতে দেশের সম্মান অক্ষুন্ন রাখতে বদ্ধপরিকর কর্মকর্তারা।

সোমবার জাতীয় ক্রীড়া পরিষদে সংবাদ সম্মেলনে স্পেশাল অলিম্পিক কমিটির ন্যাশনাল ডিরেক্টর ফারুকুল ইসলাম বলেছেন, ‘আবুধাবিতে আমরা আগের চেয়ে অনেক বেশি সতর্ক থাকবো। সেখানে চারজন খেলোয়াড়ের সঙ্গে একজন কোচ অথবা কর্মকর্তা থাকবেন। তারা খেলোয়াড়দের দেখে রাখবেন। খেলোয়াড়দের পাসপোর্ট সহ সব কাগজপত্র থাকবে আমাদের কাছে। তাই অঘটন ঘটার কোনও সুযোগ নেই।’

চার বছর আগে যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলসে অনুষ্ঠিত স্পেশাল অলিম্পিকে ১৮টি সোনা জিতেছিল বাংলাদেশ। আবুধাবিতেও সাফল্য পেতে আশাবাদী বাংলাদেশ দলের হেড অব ডেলিগেশন নুরুল আলম, ‘প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়াই সবচেয়ে বড় কথা। আমরা চাই ছেলে-মেয়েদের যেন ঠিকমতো মানসিক বিকাশ হয়। পাশাপাশি পদক জয়ের আশা তো করছিই। আশা করি, ছেলে-মেয়েরা এবারও আমাদের হতাশ করবে না।’

আবুধাবিতে স্পেশাল অলিম্পিক দলের সহযোগী হিসেবে থাকছে কোকা-কোলা বাংলাদেশ লিমিটেড।

Print Friendly, PDF & Email