ওমানকে হারিয়ে শীর্ষে বাংলাদেশ

স্পোর্টস লাইফ, প্রতিবেদক ওমানকে ১০-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে বেক্সিমকো অনূর্ধ্ব-১৮ এশিয়া কাপ হকির পুল ‘এ’এর শীর্ষস্থান দখল করেছে বাংলাদেশ। এক পেশে এ খেলায় তিনটি করে গোল করেছেন ফরোয়ার্ড মো. মহসিন ও ডিফেন্ডার আশরাফুল ইসলাম।

এর ফলে পুল ‘এ’ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে বাংলাদেশ প্রি-ক্ল্যাসিফিকেশন ম্যাচ খেলবে চাইনিজ তাইপের বিপক্ষে। আর এই ম্যাচের জয়ী দলই খেলবে প্রথম-দ্বিতীয় স্থান নির্ধারনী ম্যাচ বা ফাইনালে। বৃহস্পতিবার মাঠে গড়াবে প্রি-ক্ল্যাসিফিকেশনের ম্যাচটি।

এদিন ওমানের বিপক্ষে কোনও রকম আড়ষ্টতার ছাপ দেখা যায়নি বাংলাদেশের খেলায়। আগে গোল খরা থাকলেও পরে ঠিকেই ছন্দে চলে আসে বাংলাদেশ। যেখানে চতুর্থ মিনিটেই গোলের মুখ দেখে বাংলাদেশ। ডানপ্রান্ত দিয়ে দ্রুতগতিতে বল নিয়ে ঢুকে পড়েন ফরোয়ার্ড ফজলে হোসেন রাব্বি। তার কাটব্যাকে বক্সের মাঝামাঝি দাঁড়ানো মাহবুব হোসেন কোনাকুনি হিটে বল বোর্ডে জড়িয়ে দেন।

প্রথম দিকে গোল মিস করলেও সাত মিনিটেই সেই ব্যর্থ কাটিয়ে উঠেন আরশাদ। অধিনায়ক রোমান সরকারের বাম প্রান্ত থেকে করা জোরালো হিটে চমৎকার ফ্লিক করে ওমানি গোলরক্ষক ইব্রাহিম আল হাসনিকে পরাস্ত করেন আরশাদ।

এরপর ১৬ মিনিটে বাংলাদেশ ফরোয়ার্ড মো. মহসিন করেন তৃতীয় গোল।  আর এবারও অ্যাসিস্ট করেন রোমান সরকার। ২৫ গজ লাইন থেকে কোনাকুনি দৌড়ে তিনি স্কয়ার পাস দেন মোহসিনকে। তার প্রথম হিটটি ইব্রাহিম প্যাড দিয়ে রুখে দিলে দ্বিতীয় প্রচেষ্টায় বল গোললাইন পার করেন তিনি।

একইভাবে রোমান সরকার সফল অ্যাসিস্টের হ্যাটট্রিক করেন ১৯ মিনিটে। এবার তার হিটে পুশ করে গোল করেন ফজলে রাব্বি। এই গোলেই বাংলাদেশ নেয় চার গোলের অগ্রগামিতা।

খেলায় এগিয়ে গেলেও ফিল্ড গোলের ধারায় পেনাল্টি কর্নার পাচ্ছিল না বাংলাদেশ। কিন্তু ড্র্যাগ অ্যান্ড ফ্লিক স্পেশালিস্ট আশরাফুল ইসলামের মাধ্যমে ২২ মিনিটে প্রথম ও ৩৩ মিনিটে দ্বিতীয় পেনাল্টি কর্নার পায় বাংলাদেশ। আর আশরাফুলের এই পাওয়ার আর বৈচিত্র্যের কোনও জবাব ছিল না ওমানের। পাঁচ ও সাত নম্বর গোল ছিল দুটি। মাঝে ষষ্ঠ গোলটি করেছিলেন মো. মহসিন।

প্রধমার্ধে একটি পিসি ও ফরোয়ার্ড রাশাদ আল ফাজারির একটি আক্রমণ ছাড়া আর কিছুই করতে পারেনি ওমান।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ওমান কিছুটা আক্রমণাত্মক মেজাজে শুরু করলে দীর্ঘক্ষণ গোলের দেখা পায়নি বাংলাদেশ। ১৮ মিনিট পর অর্থাৎ ৫৩ মিনিটে মাহবুবের হিটে ফ্লিক করে নিজের তৃতীয় গোল করে দলকে আট গোলের লিড দেন বাংলাদেশকে। ৬২ মিনিটে আশরাফুল নবম ও ৬৮ মিনিটে ফজলে রাব্বি দশম গোল করেন।

Print Friendly, PDF & Email