কমনওয়েলথ গেমসে শিরিন ৩৮তম আর মেসবাহ হলেন ৫৩তম

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কঅষ্ট্রেলিয়ার গোল্ডকোষ্ট শহরে অনুষ্ঠিত ২১তম কমনওয়েলথ গেমসে শ্যূটিং হতে প্রথম রৌপ্য পদক  বাংলাদেশকে এনে দেন আব্দুল্লাহ হেল বাকী।

৮ এপ্রিল ২০১৮ইং তারিখে শ্যূটিং এর পুরুষ ১০মি. এয়ার রাইফেল এবং মহিলা ১০ মিটার এয়ার পিস্তলের খেলা অনুষ্ঠিত হয়। শ্যূটার আব্দুল্লাহ হেল বাকী ১০মি. এয়ার রাইফেলে বাংলাদেশের হয়ে প্রথম রৌপ্য পদক অর্জন করেন। স্বর্ণ পদকের খুব কাছাকাছি গেলেও দূর্ভার্গজনকভাবে শেষ পর্যন্ত রৌপ্য পদক নিয়েই বাকীকে সন্তুষ্ট থাকতে হয়।

পুরুষদের ১০মি. এয়ার রাইফেলে আব্দুল্লাহ হেল বাকী এবং মোঃ রাব্বি হাসান মুন্না অংশগ্রহণ করেন। শ্যূটার রাব্বি হাসান ফাইনাল রাউন্ডে উত্তীর্ণ হতে পারেন নাই। তিনি অংশগ্রহণকারী ১৮ জন এ্যাথলেট এর মধ্যে ৬০৭.৬ পয়েন্ট পেয়ে ১৪তম স্থান লাভ করেন।

মহিলাদের ১০ মি. এয়ার পিস্তলে আরদিনা ফেরদৌস এবং আশা আরমিন অংশ নেন। উক্ত খেলায় ২৫ জন মহিলা খেলোয়াড় এর মধ্যে তারা যথাক্রমে ৯ম এবং ১৭তম স্থান অর্জন করেন। ফাইনাল রাউন্ডে (শেষ আটে) উত্তীর্ন হতে পারেন নাই।

শ্যূটিং দল ছাড়াও রোববার (৮এপ্রিল) বাংলাদেশের এ্যাথলেটিক, সুইমিং এবং ভারোত্তোলন দলের খেলোয়াড়েরা অংশ নেন।

এ্যাথলেটিকস্-এ শিরিন আক্তার মহিলাদের ১০০ মি. দৌড়ে এবং পুরুষদের ১০০ মি. দৌড়ে মেসবাহ আহমেদ অংশ নেন। শিরিন আক্তার ১০০ মি. স্প্রিন্টে হিটে ১২.৭২ সেকেন্ড সময় নিয়ে অংশগ্রহণকারী ৪২ জন খেলোয়াড়ের মধ্যে ৩৮তম স্থান লাভ করেন।

অন্যদিকে মেসবাহ আহমেদ ১০০মিটার স্প্রিন্টে হিটে ১০.৯৬ সেকেন্ড সময় নিয়ে অংশগ্রহণকারী ৬৭ খেলোয়াড়ের মধ্যে ৫৩তম স্থান করেন। উভয়েই পরবর্তী রাউন্ডে উত্তীর্ণ হতে পারেন নাই।

সুইমিং-এ বাংলাদেশের সুইমার মোঃ আরিফুল ইসলাম ৫০ মি. ব্রেস্টস্ট্রোকে হিটে ৩০.৩৭ সেকেন্ড সময় নিয়ে অংশগ্রহণকারী ৩৫ খেলোয়াড়ের মধ্যে ২৩তম স্থান লাভ করেন। তিনি পরবর্তী রাউন্ডে উন্নীত হতে পারেন নাই।

এবং মোঃ মাহমুদুন নবী নাহিদ ১০০মি. বাটারফ্লাই ইভেন্টে হিটে ৫৬.৯৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে অংশগ্রহণকারী ২৯ জন খেলোয়াড়ের মধ্যে ২১তম স্থান অধিকার করেন। তিনিও পরবর্তী রাউন্ডে উন্নীত হতে ব্যর্থ হন।

ভারোত্তোলনে জোহুরা খাতুন নিশা ৭৫ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্ন্যাচে ৬৫ কেজি এবং ক্লিন এন্ড জার্কে ৯০ কেজি মোট ১৫৫ কেজি উত্তোলন করেন। তার অবস্থান ১২তম (১২ জনের মধ্যে)।

Print Friendly, PDF & Email