কামিন্স তোপে অস্ট্রেলিয়ার ইনিংসে জয়

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কঅস্ট্রেলিয়া প্রথম ইনিংসে করে ৩২৩ রান। দুই ইনিংস মিলিয়ে এই স্কোরটাই টপকাতে পারলো না শ্রীলঙ্কা। প্যাট কামিন্সের তোপের মুখে দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ১৩৯ রানে গুটিয়ে গেছে লঙ্কানরা। তাতে ব্রিসবেনের দিবারাত্রির টেস্ট ইনিংস ও ৪০ রানে জিতে নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

তিন দিনেই শেষ হয়ে গেছে ব্রিসবেন টেস্ট। ইনিংস ব্যবধানে জয়ে দুই ম্যাচের সিরিজে অস্ট্রেলিয়া এগিয়ে গেলে ১-০-এ। প্রথম ইনিংসে ৪ উইকেট নেওয়া কামিন্স ‍দ্বিতীয় ইনিংসে হয়ে ওঠেন আরও ভয়ঙ্কর। ২৩ রান খরচায় ৬ উইকেট নিয়ে এই পেসার গুঁড়িয়ে দিয়েছেন লঙ্কানদের ব্যাটিং লাইন।

প্রথম ইনিংসে ১৪৪ রানে অলআউট হওয়া শ্রীলঙ্কা দ্বিতীয় ইনিংসে এই স্কোরটাও করতে পারেনি। দ্বিতীয় দিনের ১ উইকেটে ১৭ রান নিয়ে তৃতীয় দিন শুরু করে কামিন্স ঝড়ে তারা এলোমেলো। ৭৯ রানের মধ্যেই হারায় ৬ উইকেট।

দিনের শুরুতেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন দিনেশ চান্ডিমাল। শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক রানের খাতা খুলতে পারেননি। তাকে ফেরানো কামিন্স আউট করেছেন শ্রীলঙ্কার টপ অর্ডারের পাঁচ ব্যাটসম্যানকে। আগের দিন দিমুথ করুণারত্নের পর তৃতীয় দিনের শুরুতে চান্ডিমালকে ফেরানো এই অস্ট্রেলিয়ান পেসারের সামনে দাঁড়াতে পারেননি কুশল মেন্ডিস (১) ও রোশন সিলভা (৩)।

ইনিংসে শ্রীলঙ্কার সর্বোচ্চ স্কোরার লাহিরু থিরিমানেকে (৩২) ফিরিয়ে টেস্ট ক্যারিয়ারের পঞ্চমবারের মতো তিনি পূরণ করেন ৫ উইকেট। পরে দিলরুয়ান পেরেরাকে আউট করে ২৩ রান খরচায় কামিন্সের শিকার ৬ উইকেট। ম্যাচে ১০ উইকেট পাওয়া এই পেসারের হাতেই উঠেছে ম্যাচসেরার পুরস্কার।

কামিন্স ঝড়ের সঙ্গে যোগ দিয়েছিলেন ঝাই রিচার্ডসন। অভিষিক্ত এই পেসার নিয়েছেন ধনাঞ্জয় ডি সিলভা (১৪) ও নিরোশান ডিকবেলার (২৪) উইকেট দুটি। শ্রীলঙ্কার আরও আগেই অলআউট হয়ে যেত, যদি না শেষ দিকে সুরঙ্গা লাকমাল ২৪ রান করতেন। 

Print Friendly, PDF & Email