কিংসে ইরান থেকে আসছেন খালেদ সাফিই

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কআগামী এএফসি কাপ ও ঘরোয়া মৌসুমকে সামনে রেখে আরও শক্তিশালী হয়ে ওঠার চেষ্টা করছে দেশের ফুটবলের নুতুন আকর্ষণ বসুন্ধরা কিংস। খেলার সূচি এখনো চূড়ান্ত না হলেও আগে ভাগেই বিদেশি খেলোয়াড় এনে তৈরি হচ্ছে দলটি।

নতুন করে দলে নেওয়া হয়েছে ইরানের ডিফেন্ডার খালেদ সাফিইকে। ৩৩ বছর বয়সী ইরানি এই ডিফেন্ডার সর্বশেষ খেলেছেন ইরান প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব সেপাহান স্পোর্টস ক্লাবের হয়ে।

করোনা ভাইরাসের কারণে বাতিল হয়ে যাওয়া এএফসি কাপে মাত্র একটি ম্যাচ খেলেছিল বসুন্ধরা। মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস ক্লাবের বিপক্ষে ৫-১ গোলের বড় জয় পেলেও ম্যাচের প্রথমার্ধে ফুটে উঠেছিল রক্ষণভাগে ফাঁক ফোকর। আর্জেন্টাইন হোল্ডিং মিডফিল্ডার নিকোলাস দেলমন্তেকে মিডফিল্ড থেকে সরিয়ে এনে দ্বিতীয়ার্ধে সেন্টারব্যাক খেলিয়ে সেই ম্যাচে পার পেয়েছিল তারা। তখনই ক্লাব কর্তারা সিদ্ধান্ত নেয় ভালো মানের একজন সেন্টারব্যাক দলে ভেড়ানোর। সেই হিসেবে খালেদকে আনতে যাচ্ছে বসুন্ধরা।

ফেডারেশন কাপ দিয়ে ডিসেম্বরে নতুন মৌসুম শুরু হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। এছাড়া জানুয়ারিতেই এএফসি কাপের দক্ষিণ এশিয়ান অঞ্চলের প্লে অফ পর্ব শুরু হওয়ার কথা। অবশ্য শেষ ফেডারেশন কাপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে সরাসরি এএফসি কাপে খেলবে বসুন্ধরা। মার্চে শুরু হওয়ার সম্ভাবনা আছে সে টুর্নামেন্টের। এএফসি কাপ ও ঘরোয়া মৌসুমকে সামনে রেখে এরই মধ্যে তিন বিদেশি ফুটবলার চূড়ান্ত হয়ে গেল বসুন্ধরার।

খালেদের আগে দলে নেওয়া হয়েছে দুই ব্রাজিলিয়ান রবসন রবিনহো ও জোনাথন ফার্নান্দেজকে। ১১ সেপ্টেম্বর ঢাকায় পা রেখে বর্তমানে দুই সপ্তাহের কোয়ারেন্টিনে আছেন তাঁরা। দলে আছেন আরও একজন বিদেশি আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের সাবেক স্ট্রাইকার হার্নান বার্কোস।

ডিসেম্বরেই বসুন্ধরার সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়ে যাবে বার্কোসের। এরই মধ্যে বার্কোসের বাংলাদেশ ছাড়ার ব্যাপারে গুঞ্জন শুরু হলেও তাঁর সঙ্গে নতুন চুক্তিতে আগ্রহী বসুন্ধরাও। যদি খালেদ, রবিনহো ও ফার্নান্দেজের সঙ্গে বার্কোসও রয়ে যান তাহলে শক্তিশালী একটি দল হয়ে উঠবে বসুন্ধরা কিংস। 

Print Friendly, PDF & Email