ক্যারিকের বিদায়ী ম্যাচে ম্যানইউর জয়

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কশেষ ম্যাচে জয়সূচক গোলের অন্যতম যোগানদাতা হয়েই ক্লাব ক্যারিয়ারকে বিদায় জানালেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কিংবদন্তি ও সাবেক ইংলিশ মিডফিল্ডার মাইকেল ক্যারিক। আগামী মৌসুমে কোচ মরিনহোর সঙ্গে ইউনাইটেডের কর্মকর্তা হিসেবে দেখা যাবে তাকে।

বিদায়ী ম্যাচে অধিনায়কের আর্মব্যান্ড তুলে দেয়া হয় ম্যানইউর এ জীবন্ত কিংবদন্তির হাতে। দেয়া হয় গার্ড অব অনারও। আর বদলি হিসেবে যখন তার পরিবর্তে পল পগবা মাঠে নামছিলেন তখনও পেয়েছেন ভক্তদের স্ট্যান্ডিং অভিয়েশন।

তবে ম্যাচের শুরু থেকেই কিছুটা খাপছাড়াভাবে খেলা শুরু করে ইউনাইটেড। সামনে চেলসির বিপক্ষে এফএ কাপের ফাইনালকে লক্ষ্য রেখেই হয়ত কিছুটা নির্ভার হয়ে খেলতে শুরু করে ম্যানইউ। তারই সুযোগ নিয়ে দারুণ কিছু কাউন্টার অ্যাটাকেও গিয়েছিল ওয়াটফোর্ড।

তবে ফিনিশিংয়ের ব্যর্থতায় এগিয়ে যাওয়া হয়নি ওয়াটফোর্ডের। উল্টো ম্যাচের ৩৪তম মিনিটে মাঝমাঠ থেকে ক্যারিক অসাধারণ দক্ষতায় বাড়ানো থ্রু বল বাড়ান মাতার উদ্দেশ্যে। হুয়ান মাতা সেই বল পায়ে নিয়েই বাড়িয়ে দেয় তরুণ স্ট্রাইকার রাশফোর্ডের কাছে। গোলরক্ষককে একা পেয়ে পরাস্ত করতে একটুও ভুল করেনি মার্কাস রাশফোর্ড।

ওই একমাত্র গোলই শেষ পর্যন্ত জয় নির্ধারক হয়ে দাঁড়ায়। গোল মিসের মহড়ায় জয়ের ব্যবধান আর বাড়াতে পারেনি সানচেজ, রাশফোর্ডরা। ম্যাচ শেষে ওয়াটফোর্ডের জন্য দুঃসংবাদ হয়ে আসে ডিফেন্ডার ক্রিশ্চিয়ান কাবাসেলের ইঞ্জুরি। শেষ পর্যন্ত ১-০ গোলের ব্যবধানের জয়ের ফলে ৩ পয়েন্ট নিয়েই মাঠ ছাড়ে মরিনহোর শীষ্যরা।

আর শেষ ম্যাচ হেরে ১৪ নম্বরে থেকে এ বছরের প্রিমিয়ার লিগ শেষ করল ওয়াটফোর্ড। তবে খেলার শুরুতেই চমক হয়ে আসে উইংগার আন্তোনিও মার্শালের দলে না থাকা দিয়ে। মৌসুম শেষে ম্যানইউ ছাড়ার গুজবে আরও আঁচ লাগে, তার দলে নাম না থাকার কারণে।

পরে অবশ্য জানানো হয়েছে, ইঞ্জুরির কারণেই এই ম্যাচে দলে ছিলেন না তিনি। মৌসুম শেষেই জানা যাবে, ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে তিনি থাকছেন কি থাকছেন না। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শেষতম রাউন্ড শেষে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ৮১ পয়েন্ট নিয়ে রানারআপ, যা কিনা লিগ চ্যাম্পিয়ন তাদেরই প্রতিবেশি সিটির চেয়ে ১৯ পয়েন্ট কম। ১০০ পয়েন্ট নিয়ে প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে রেকর্ডই গড়লো ম্যানিসিটি।

Print Friendly, PDF & Email