ক্রীড়াঙ্গনে ডোপিং এক মারাত্মক ব্যাধী : যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী

স্পোর্টস লাইফপ্রতিবেদক : ‘ক্রীড়াঙ্গনে ডোপিং এক মারাত্মক ব্যাধী। ডোপমুক্ত ক্রীড়াঙ্গন গড়ে তোলার লক্ষ্যে বিশ্ব অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সির সাথে বাংলাদেশও দায়িত্ব নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।

ডোপিং বিরোধী শিক্ষা এবং সচেতনতামূলক কার্যক্রমের মাধ্যমে আমাদের ক্রীড়াঙ্গনের খেলোয়াড় কোচ এবং কর্মকর্তারা ডোপিং এবং অ্যান্টি ডোপিং সম্পর্কে সচেতন হবেন।’

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ অলিম্পিক এ্যাসোসিয়েশন যৌথভাবে আয়োজিত আজ বৃহস্পতিবার(১৭নভেম্বর) জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত অ্যান্টি ডোপিং বিষয়ে সচেতনা সৃষ্টির ওপর এক সংবাদ সম্মেলনে যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয় এমপি এ কথা বলেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব কাজী আখতার উদ্দিন আহমেদ, যুগ্ম সচিব ওমর ফারুক, জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস, বাংলাদেশ অলিম্পিক এ্যাসোসিয়েশনের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফকরুদ্দিন হায়দার ও ডা. শফিকুর রহমান।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়েছে যে, ইউনেসকোর সহযোগিতায় বাংলাদেশে ৩টি ভেন্যুতে ডোপিং বিরোধী শিক্ষা এবং সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

এই কার্যক্রমের আওতায় ১৯ নভেম্বর বিকেএসপিতে, ২২ নভেম্বর ঢাকা এবং ২৬ নভেম্বর চট্টগ্রামে সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। এই কর্মশালায় ক্রীড়াঙ্গনের খেলোয়াড়, কোচ ও কর্মকর্তারা অংশ নেবেন।

Print Friendly, PDF & Email