জার্মানি-স্পেনের ড্র

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ক : সেয়ানে সেয়ানে লড়াই বলে একটা কথা আছে। জার্মানি-স্পেন ম্যাচে যেন সেটারই প্রতিরূপ হয়ে ধরা দিয়েছিল শুক্রবার রাতে। কোথায় ভালো ফুটবলার নেই এই দুই দলের? গোলকিপার থেকে শুরু করে আক্রমণভাগ, সবখানেই যেন তারকার ছড়াছড়ি ২০১০ এবং ২০১৪ বিশ্বকাপজয়ী দুই দলেরই। লড়াইটাও হলো সেই রকমই। ১-১ গোলের ধ্রুপদী এক ম্যাচ দেখলো বিশ্ব।

যেখানে ম্যাচের প্রত্যেক সেকেন্ডে সেকেন্ড ছিল উত্তেজনা। আবারও ডে গিয়া এবং টের স্টেগান প্রমাণ করলেন কেন তাদেরকে বর্তমান সময়ের সেরা গোলকিপার বলা হয়। দু’জনই যেন নিজেদেরকে ছাপিয়ে যাওয়ার মিশনে নেমেছিলেন।

বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের কিছুটা অবাক করে দিয়েই ম্যাচের শুরুতেই গোল করে বসে ২০১০ সালের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন স্পেন। ইনিয়েস্তার ডিফেন্স চেরা পাস থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন রড্রিগো। এরপর শুরু হয় জার্মান আক্রমণ। ৯ মিনিটে কিমিচের ক্রসে মাথা ছোঁয়াতে ব্যর্থ হন টিমো ওয়ার্নার। পরের মিনিটে হেক্টরের দুর্দান্ত ভলি একটুর জন্য গোলবারের উপর দিয়ে চলে যায়। ৩১ মিনিটে আবারও গোলের সুযোগ পেয়েছিল জার্মানি কিন্তু ওয়ার্নার আবারও ব্যর্থ হন। অবশেষ ৩৫ মিনিটে ডে গিয়া দেয়াল ভাঙেন থমাস মুলার।

ক্রুসের কাছ থেকে বল পেয়ে খেদেইরা বল বাড়ান থমাস মুলারের দিকে। মুলার সেটিকে গোলে পরিণত করলে সমতায় ফেরে বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। ৪৩ মিনিটে ড্রাক্সলার শট নিলেও সেটি রুখে দেন রামোস।

সমতায় থেকে বিরতি থেকে ফিরেও চলে আক্রমণ প্রতি আক্রমণ। ৪৭ মিনিটে বা পাশ থেকে ড্রাক্সলারের দুর্দান্ত শট রুখে দেন ডে গিয়া। ৫৫ এবং ৫৬ মিনিটে ইস্কোর দুটি প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দেন জার্মান গোলকিপার টের স্টেগান। ৬৫ মিনিটে ক্রুসের ফ্রি কিক ক্রসবারের লেগে বাইরে গেলে গোলবঞ্চিত হয় জার্মানি। ৬৮ মিনিটে আসেন্সিওর ক্রসে গোল করতে ব্যর্থ হন ডিয়েগো কস্তা। ৮৯ মিনিটে গোরেতজকা রামোসকে একা পেয়েও তাকে পরাস্ত করে বল এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেননি। ফলে ১-১ গোলের ড্র নিয়ে সন্তুষ্ট থাকত হয় দু’দলকে। জার্মানি পরের ম্যাচ খেলবে ব্রাজিলের বিপক্ষে। অন্যদিকে স্পেন মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনার।

Print Friendly, PDF & Email