ঝলসে উঠলেন নেইমার, সেমিতে ব্রাজিল

স্পোর্টস লাইফডেস্ক : কলম্বিয়া তাঁর কাছে দুঃস্বপ্নের প্রতিশব্দ হয়ে ছিল এত দিন। ২০১৪ বিশ্বকাপের কথা মনে নেই? এই কলম্বিয়ার কারণেই তো মারাত্মক এক চোট নিয়ে বিশ্বকাপ থেকেই ছিটকে গেলেন। এরপর বাইরে বসে দেখলেন জার্মানির কাছে কীভাবে ধুলোয় মিশে গেল সব।

কিংবা ২০১৫ কোপা আমেরিকা? এই কলম্বিয়ার উসকানিতেই লাল কার্ড দেখে ছাড়লেন মাঠ। আবারও ছিটকে গিয়েছিল ব্রাজিল। নেইমার সেই কলম্বিয়াকেই আজ ঝলসে দিলেন নিজের দ্যুতিতে। ২-০ গোলে জিতে অলিম্পিক ফুটবলের সেমিফাইনালে উঠে গেল ব্রাজিল।

সেমিফাইনালে ব্রাজিল সহজ প্রতিপক্ষই পেয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়াকে ১-০ গোলে হারিয়ে শেষ চারে ওঠা হন্ডুরাস তাদের প্রতিপক্ষ। অন্য সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে জার্মানি-নাইজেরিয়া। আগের ম্যাচে ফিজির জালে ১০ গোল দেওয়া জার্মানি এবার পর্তুগালকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে। অন্য ম্যাচে নাইজেরিয়া ২-০ গোলে হারিয়েছে ডেনমার্ককে।

তবে সব ছাপিয়ে আলোতে কেবলই নেইমার। ব্রাজিল অধিনায়ক এবারের শুরু থেকেই দর্শকদের দুয়ো শুনছিলেন। এমনকি কোণঠাসা ব্রাজিল গত ম্যাচে ডেনমার্ককে যে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিল, সেই ম্যাচেও দর্শকদের একটা অংশ বিদ্রূপের ধ্বনি শুনিয়েছে নেইমারকে। তাঁর কাছে যে ফুটবল আশা করে সবাই, সেটাই যে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। অবশেষে নেইমার ঠিক সময় আর প্রতিপক্ষকে বেছে নিলেন। আজ নিজে একটা গোল করে, করিয়ে ম্যাচের নায়ক এই বার্সেলোনা তারকাই।

নেইমার আর ব্রাজিলের প্রথম গোলটি এসেছে ১২ মিনিটে। দুর্দান্ত এক ফ্রি কিক থেকে। ২৫ গজ দূর থেকে নেওয়া চোখধাঁধানো এক শটে। ৮৩ মিনিটে করা পরের গোলটি অবশ্য আরও চোখধাঁধানো। ঘিরে ধরা ডিফেন্ডারদের বোকা বানিয়ে দারুণ এক পাস লুয়ানকে ঠেলেছেন নেইমার। আর এবারের অলিম্পিকে আলাদা করে চোখে পড়া লুয়ান দূরপাল্লার শটে বল পাঠিয়েছেন জালে।

গত সপ্তাহেই ব্রাজিলের ১০ নম্বর জার্সির ওপর নেইমারের নাম কেটে সমর্থকেরা বসিয়ে দিয়েছিল মার্তার নাম। যেন বার্তা দিয়েছিল, নেইমার, তুমি ১০ নম্বরের মর্যাদা রাখছ না। নেইমার এবার শুধু জার্সিতে নয়, দর্শকদের মনেও ১০ নম্বরটার ছাপ আবার বসিয়ে দিলেন। আর তো মাত্র দুটি ম্যাচ। তাহলেই সেই পরম আরাধনার সোনা!

Print Friendly, PDF & Email