নতুন ভেন্যু সিলেটে শনিবার শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে প্রথম টেস্ট

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কজিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্ট ম্যাচ দিয়ে টেস্ট ভেন্যু হিসেবে অভিষেক হচ্ছে সিলেটের। আর এই বিশেষ টেস্ট ম্যাচ জয় দিয়ে উদযাপন করতে চান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদরা। যদিও জিম্বাবুয়েকে ভালো দল হিসেবে বেশ সমীহই করছেন বাংলাদেশ দলের এই টেস্ট অধিনায়ক। তবুও সিলেটের মাঠে প্রথম টেস্ট ম্যাচ স্মরণীয় করে রাখার ইচ্ছা বাংলাদেশ দলের।

শুক্রবার (২নভেম্বর) ম্যাচ পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে নিজের স্বপ্নের কথা জানান বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক (ভারপ্রাপ্ত) মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। 

 

অধিনায়কত্ব নিয়ে স্বপ্ন, চ্যালেঞ্জ ও দলের পারফম্যান্সের বিষয়টি তুলে ধরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে রিয়াদ বলেন, ‘অধিনায়কত্ব প্রতিটি খেলোয়াড়ের জন্য ভালোলাগার একটা বিষয়। সেই সঙ্গে দায়িত্ববোধও বেড়ে যায়। দায়িত্ব শতভাগ পালনের জন্য সব সময় তাড়া করে।’

ওয়ানডে সিরিজ জয় খেলোয়াড়দের মানসিকতা ও আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি করেছে জানিয়ে রিয়াদ বলেন, ‘অবশ্যই, সিলেটে ভালো করার জন্য এটা আমাদের জন্য একটা ভালো সুযোগ। ওয়ানডেতে ভালো করলে টেস্ট ক্রিকেটেও ভালো পারফর্ম করা যায়।’

ওয়ানডেতে নাজমুল ইসলাম অপু ও মোহাম্মদ মিঠুন দারুণ পারফরম্যান্স করেন। সেই ধারাবাহিকতা সাদা পোশাকেও বজায় থাকবে এমনটাই আশা করছেন রিয়াদ। শুধু এই দুজনই নয়, দলের ভালো ফলাফল আশা করে রিয়াদ বলেন, ‘আমাদের অনেক ত্রুটি রয়েছে, আমরা ম্যাচ দু’টি কাজে লাগিয়ে ত্রুটি সারাতে চাই। আমরা ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং তিনটি বিভাগেই ভালো করতে চাই।’

অধিনায়ত্ব খেলার উপর কি ধরণের প্রভাব ফেলে এমন প্রশ্নে রিয়াদ বলেন, ‘অবশ্যই দায়িত্ব খেলাকে প্রভাবিত করে। ফলে দায়িত্ব নিতে পছন্দ করি। নিজের সেরাটা দেওয়া ও সতীর্থদের স্বতন্ত্রভাবে খেলতে দেওয়ার মানসিকতা তৈরি করে এই দায়িত্ব।’

প্রথম ম্যাচে শুরুটা ভালো হলে পরবর্তী সময়ও ভালো যায়, এমনটাই মনে করেন রিয়াদ। তবে নতুন স্টেডিয়ামের নতুন উইকেট নিয়ে কিছুটা চিন্তায় আছেন ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সকালবেলা দেখেছি উইকেট কিছুটা ড্রাই আছে। তারপরও আগামিকাল (৩ নভেম্বর) সকালে ফের উইকেট দেখে ম্যাচে কিভাবে খেলোয়াড়দের খেলাতে হবে তা ঠিক করা হবে।’

অভিষেক টেস্টে সিলেট স্টেডিয়ামে ঘন্টা ব্যবহারের বিষয়ে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক বলেন, ‘আমরা স্বভাবত লর্ডস ক্রিকেটে এই বিষয়টি দেখি ঘন্টা বাজিয়ে টেস্ট খেলা শুরু হয়। এবার নিজেদের মাটিতে দেখে স্বভাবতই খুব ভালো লাগবে। আর ম্যাচ তিনদিনে না পাঁচদিনে গড়াবে, তা খেলাই নির্ধারণ করবে। তবে আমরা জিম্বাবুয়েকে খাটো করে দেখছি না।’

বাংলাদেশ টিমের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়কের দায়িত্ব পালন আনলাকি কিনা? এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘দায়িত্ব নিয়েই চিন্তা করি। এটাই লক্ষ্য। এখানে লাকি, আনলাকির কোনো বিষয় না। এখনো নিজের সামর্থ্যের অনেক প্রমাণ দেওয়ার বাকি আছে।’

Print Friendly, PDF & Email