না খেয়ে থাকছেন কি,তাহলে সাবধান

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ক : কাজের চাপের কারণে প্রায় সময় কি খাবার খেতে ভুলে যান আপনি? আপনি কি ওজন কমাতে ব্রেকফাস্ট, লাঞ্চ বা ডিনার খাওয়া থেকে নিজেকে বিরত রাখতে চান? তাহলে সাবধান। এতে করে আপনার শরীরে দেখা দিতে পারে বিরূপ প্রতিক্রিয়া। আপনি যতোটুকু ভাবছেন, তার চেয়েও বেশি ক্ষতি হতে পারে শরীরের।  আর যারা ওজন কমাতে খাওয়া ছেড়ে দেন, তাদের উল্টো বেশি ক্ষতি হতে পারে। এতে করে মাংসপেশির কোষগুলো ভেঙ্গে গিয়ে ওজন আরো বেড়ে যাওয়া সহ  বেশ কিছু সমস্যা তৈরি করতে পারে। চলুন জেনে নেই না খেলে আরো কী  কী  সমস্যা হয়-

ডায়াবেটিস ঝুঁকি :  আপনি যখন বেশিক্ষণ না খেয়ে থাকবেন, তখন মস্তিষ্কে গ্লুকোজ সরবরাহ কমে যাবে, এতে করে মনোযোগ,স্মৃতিশক্তিও কমে যায় কিছুটা। আর না খেলে লিভারে ইনসুলিন হরমোন কাজ করতে পারে না। এতে করে এক পর্যায়ে শরীরে উৎপন্ন অতিরিক্ত গ্লুকাজ রক্তে জমে টাইপ টু ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হতে পারেন আপনি।

মন মেজাজ ঠিক থাকে না: সঠিক সময়ে খাবার না খেলে পর্যাপ্ত পুষ্টি থেকে বঞ্চিত হবেন আপনি। ব্লাড সুগার মাত্রা এলো মেলো হয়ে আপনার মন মেজাজও খিঁচড়ে যেতে পারে। ঠিক মতো খাবার না খাওয়ার কারণে মস্তিষ্ক সঠিকভাবে কাজ করতে পারে না।

হজমে গণ্ডগোল: পুরো দিন জুড়েই আপনার শরীর কাজ করে। তাই সঠিক সময়ে খাবার না খেলে হজমে গণ্ডগোল দেখা দিতে পারে। হজম ও বিপাক ক্রিয়া ঠিক রাখতে প্রতিদিন তাই ৩ বার ভারি খাবার ও দু’বার স্ন্যাকস  খাওয়া উচিত।

বিপাকে সমস্যা: খাবার সঠিক সময়ে না খেলে আপনার শরীরে বিপাক প্রক্রিয়া ব্যাহত হয়। এতে করে অতিরিক্ত ক্যালরি পুড়তে না পেরে ফ্যাটে পরিণত হয়। তাতে ওজন বেড়ে যেতে পারে। তাই প্রতিদিন সকালে ব্রেকফাস্ট করা খুব জরুরী।

মানসিক চাপ: খাবার খাওয়া বন্ধ রাখলে শরীরে অ্যাড্রিনালিন ও আরো কিছু হরমোন নির্গত হয়। এতে করে  মানসিক চাপ বেড়ে উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ, হতাশা এসব অসুখ দেখা দিতে পারে।

মুখে দুর্গন্ধ: খাবার না খাওয়ার কারণে মুখে স্যালাইভা নির্গত হয় কম। এতে করে মুখে প্রচুর ব্যাকটেরিয়া বাসা বাঁধে। এতে করে মুখে দুর্গন্ধ হয়।

মাথা ব্যথা ও ক্লান্তি: না খেলে শরীরে রক্ত চাপের সমস্যা দেখা দেয়। এতে করে মাথা ব্যথা, ক্লান্তি, মাথা ঘুরানো এসব সমস্যা দেখা দিতে পারে।

খাওয়ার আগ্রহ কমা: শুনতে কেমন মনে হলেও একবার যদি সঠিক সময়ে খাওয়া বাদ দেন আপনি, তাহলে অন্য সময়েও খাওয়ার আগ্রহ কমে যেতে পারে। এটি  শরীরের জন্য খুব ক্ষতিকর হয়ে উঠতে পারে।

বেশি খাওয়া : আরেকটি অদ্ভুত সমস্যা তৈরি হতে পারে। দিনের শুরুতে বা লাঞ্চের  সময় কিছু না খেলে রাতে ডিনারে অতিরিক্ত খাওয়ার প্রবণতা দেখা দিতে পারে। এতে পাকস্থলিতে অতিরিক্ত চাপ পড়ে তাতে ব্যথা করতে পারে। আর  রাতে বেশি খেয়ে আপনার ওজনও বেড়ে যেতে পারে।

Print Friendly, PDF & Email