পরীক্ষা ভুলে মেলবোর্নের নাইটক্লাবে বোল্টের সঙ্গে পার্টি ছাত্রীর

স্পোর্টস লাইফডেস্ক : লন্ডনের পর এবার মেলবোর্ন। নাইটক্লাবে স্কুলের ছাত্রীর সঙ্গে সারা রাত পার্টি করলেন ইউসেইন বোল্ট।১৮ বছরের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী ক্লদিয়া বাগলার বিশ্বের দ্রুততম মানবের সঙ্গে শুক্রবার রাতের পার্টিতে তাঁর ছবি পোস্ট করেছে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইটে। ক্লদিয়ার মন্তব্য, ‘এর চেয়ে ভাল অভি়জ্ঞতা আর কিছু হতে পারে না’।

আগামী সপ্তাহে দ্বাদশ শ্রেণির ফাইনাল পরীক্ষা দেবে ক্লদিয়া। তার আগে শুক্রবার বন্ধুদের সঙ্গে সে গিয়েছিল মেলবোর্নের একটি জনপ্রিয় নাইটক্লাবে। তাঁর সঙ্গে সময় কাটানোর জন্য ক্লদিয়াকে ডেকে নেন বোল্ট। বিশ্বের দ্রুততম মানবের সঙ্গে তাঁর পরিচয়ের ঘটনা জানাতে গিয়ে ক্লদিয়া বলেছে, ‘‘আমি কয়েকজন বন্ধুর সঙ্গে নাইটক্লাবে গিয়েছিলাম। তখনই ভিআইপি বুথ থেকে একজন এসে জানান যে, আমার সঙ্গে দেখা করতে চান বোল্ট। আমি সেই সুযোগ হাতছাড়া করতে চাইনি।’’

রিও অলিম্পিক্সের পরেই এক মহিলার সঙ্গে বেশ কিছু অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত হয়ে যাওয়ার পর বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন বোল্ট। তবে ১৮ বছরের স্কুল ছাত্রী ক্লদিয়া জানিয়েছে, শুক্রবার পার্টির পরে বোল্ট তাঁর সঙ্গে অন্তরঙ্গ মুহূর্ত কাটাননি। ‘উনি আমার সঙ্গে কিছুক্ষণ কথা বলেন। কীভাবে তিনি সময় কাটান এবং মেলবোর্নের পরিবেশ কেমন লাগছে, তা নিয়ে বোল্ট নিজের মতামত জানাচ্ছিলেন আমাকে। উনি জানতে চেয়েছিলেন, আমার বয়স কত এবং আমি কী করি’, বলেছে ক্লদিয়া।

দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী আরও বলেছে, ‘‘মহিলাদের প্রতি ওঁর আসক্তি নিয়ে যে সমস্ত কথাবার্তা শুনেছিলাম, বোল্টের সঙ্গে কথা বলার পর তা কিন্তু আদৌ মনে হয়নি। সারা রাত পার্টি করার পর আমি নিজের বন্ধুদের সঙ্গে বাড়ি ফিরে গিয়েছিলাম।’’

Print Friendly, PDF & Email