বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবলের ৩য় দিনে ২৬ উপজেলায় খেলা অনুষ্ঠিত

স্পোর্টস লাইফ, প্রতিবেদক গত ১ সেপ্টেম্বর (শনিবার) সারাদেশে একযোগে শুরু হয়েছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট (অনূর্ধ্ব-১৭) এর আন্তঃ ইউনিয়ন পর্যায়ের খেলা।

এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার (৩সেপ্টেম্বর) ২৬টি উপজেলায় খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ঢাকা জেলার নবাবগঞ্জ উপজেলায় দিনের প্রথম ম্যাচে কলাকোপা ইউনিয়নকে ২-০ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে কৈলাইল ইউনিয়ন। পরের ম্যাচে শোল্লা ইউনিয়ন ৪-০ গোলে শিকারীপাড়াকে পরাজিত করেছে।

এ ছাড়া মানিকগঞ্জ জেলার সদর উপজেলায় জুতাইল ইউনিয়নের বিপক্ষে ১-০ গোলে জিতেছে আটিগ্রাম ইউনিয়ন। এদিকে গাইবান্ধা জেলার গবিন্দগঞ্জ উপজেলার দুইটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। শাকপাড়া ইউনিয়ন, কাটাবাড়ী ইউনিয়নের বিপক্ষে ১-০ গোলে জয়লাভ করে।

এদিকে ৪ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) ঢাকার জেলার নবাবগঞ্জ উপজেলা, চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা, মেহেরপুর জেলার গাংনি উপজেলার সহ সারাদেশের ২০টি উপজেলায় অনুষ্ঠিত হবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের (অনূর্ধ্ব-১৭) আন্তঃ ইউনিয়ন পর্যায়ের খেলা।

উল্লেখ্য, প্রতিভাবান ফুটবলার খুঁজে বের করার লক্ষ্যে ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যাগে সারাদেশে শুরু চলছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট (অনূর্ধ্ব-১৭)।

১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে দেশব্যাপী আয়োজন করা হয়েছে এই ফুটবল টুর্নামেন্টের। এর মধ্যে ১২ কোটি টাকা মাঠ পর্যায়ে ব্যয় করা হচ্ছে। উপজেলা পর্যায়ে প্রতি ম্যাচে অংশ গ্রহণের জন্য যাতায়াত ও খাবার বাবদ প্রতিটি দলকে দেওয়া হচ্ছে ১০ হাজার টাকা। জেলা পর্যায়ে অংশ গ্রহণকারী দল পাবেন ১২ হাজার করে। আর বিভাগীয় পর্যায়ে অংশ নেওয়া দল সমূহ ২৪ হাজার টাকা করে বাজেট রাখা হয়েছে।

এই আসরের বাছাইকৃত সেরা ফুটবলারদের বিকেএসপি ভর্তির ব্যবস্থার মাধ্যমে দীর্ঘমেয়াদী প্রশিক্ষণের উদ্যাগ নিয়েছে ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। কিশোরদের পাশাপাশি আগামী বছর থেকে একই ভাবে কিশোরীদের ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়োজনের ব্যবস্থা করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email