বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের পুরস্কার বিতরণ

স্পোর্টস লাইফ, প্রতিবেদক প্রথমবারের মতো দশটি দলকে নিয়ে ৬ আগস্ট মাঠে গড়ায় বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ। তিন মাসের মাথায়  শনিবার (১১নভেম্বর) শেষ হয়েছে এই লিগ। ১৮ ম্যাচ থেকে ৩৫ পয়েন্ট সংগ্রহ করে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে নবাগত দল বসুন্ধরা কিংস। সমান ম্যাচ থেকে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে রানার্স-আপ হয়েছে আরেক নবাগত দল নোফেল (নোয়াখালী-ফেনী-লক্ষ্মীপুর)।

চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স-আপ হওয়ার পাশাপাশি প্রিমিয়ার ডিভিশন ফুটবল লিগে উন্নীত হয়েছে তারা। আর অগ্রণী ব্যাংক স্পোর্টস ক্লাব এবং কাওরান বাজার প্রগতি সংঘ রেলিগেশন প্রাপ্ত হয়ে দ্বিতীয় বিভাগে নেমে গেছে।

শনিবার লিগের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হয় নোফেল ও টিএন্ডটি ক্লাব মতিঝিল। তবে জয় পায়নি কেউ। ড্র করে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেছে নোফেল ও টিএন্ডটি ক্লাব।

ম্যাচ শেষে কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স-আপ দলের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের জেষ্ঠ্য সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদী, সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ, চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস ও রানার্স-আপ নোফেল এর কর্মকর্তাগণ ও খেলোয়াড়রা।

টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন দল বসুন্ধরা কিংস ৩ লাখ ও রানার্স-আপ দল নোফেলকে ২ লাখ টাকা প্রাইজমানি প্রদান করা হয়।

বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে অংশ নেয়া ১০টি দল হলো : সকার ক্লাব ফেনী, উত্তর বারিধারা ক্লাব, টিএন্ডটি ক্লাব মতিঝিল, অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড স্পোর্টস ক্লাব, ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব, ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব, বাংলাদেশ পুলিশ এসি, কাওরান বাজার প্রগতি সংঘ, নোফেল ও বসুন্ধরা কিংস।

Print Friendly, PDF & Email