বিপিএলের ধামাকা শুরু আজ

স্পোর্টস লাইফ, প্রতিবেদক টি-টোয়েন্টি মানেই ধুম-ধাড়াক্কা ক্রিকেট। ভারি ব্যাট, ব্যাটিংবান্ধব পিচ, ছোট সীমানা আর ব্যাটসম্যানদের আগ্রাসী মূর্তির কাছে অসহায় হয়ে থাকেন বোলাররা। চার-ছক্কার ফুলঝুরিতে গ্যালারিতে বিরামহীন উল্লাস দর্শকদের।  ক্রিকেটের পাশাপাশি বিনোদন ও বিপণনের অবারিত সুযোগ। আর দর্শকদের এমন বিরামহীন উল্লাসে মাতাতে আজ (শুক্রবার) থেকে মাঠে গড়াচ্ছে দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের সবচেয়ে জাঁকজমকপূর্ণ টুর্নামেন্ট বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) চতুর্থ আসর।

উদ্বোধনী দিনে অনুষ্ঠিত হবে দুটি ম্যাচ। প্রথম ম্যাচে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে দুপুর আড়াইটায় মাঠে নামবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) তিন আসরের তিনটিতেই বিজয়ী দলের অধিনায়ক মাশরাফির নেতৃত্বাধীন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স আর টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট বিশ্বকাপের দুইবার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন দলের অধিনায়ক ড্যারেন স্যামির নেতৃত্বাধীন রাজশাহী কিংস। একই ভেন্যুতে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় খুলনা টাইটান্সকে মোকাবেলা করবে রংপুর রাইডার্স।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) বর্তমান চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। গত আসরে গড়পড়তার দল নিয়েও চ্যাম্পিয়ন হয় মূলত বাংলাদেশ জাতীয় দলের রঙিন জার্সির অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার দুর্দান্ত নেতৃত্বে। অধিনাকত্বে। এবারও সেই মাশরাফির ওপর অাস্থা রেখেই দল গড়েছে কুমিল্লা। এছাড়াও পুরনো খেলোয়াড় হিসেবে তারা ধরে রেখেছেন লিটন কুমার দাস ও ইমরুল কায়েসকে।

সাম্প্রতিক সময়ে দারুণ ফর্মে আছেন ইমরুল, তাই তার দলে অন্তর্ভুক্তি নিঃসন্দেহে টপ অর্ডারে বড় পাওয়া। তবে গত বছর থেকেই অফ ফর্মে আছেন লিটন। যদিও প্রিমিয়ার লিগের শেষ দিকে ফর্মে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন তিনি। তবুও এবার তার ওপরই আস্থা রাখছে দলটি। এছাড়াও দলে আছেন আল-আমিন জুনিয়র, নাজমুল হোসেন শান্ত, নাহিদুল ইসলাম, সৈকত আলী ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের মতো তরুণরা।

বিদেশি ক্রিকেটারদের সধ্যে গত আসরের সেরা ক্রিকেটার আসহার জাইদিকে ধরে রেখেছে কুমিল্লা। এছাড়াও আছেন দুই লঙ্কান নুয়ান কুলাসেকারা ও থিসেরা পেরেরা। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের অন্যতম সেরা পারফরমার মারলন স্যামুয়েলস, সুনীল নারিনের সঙ্গে আছেন আরেক ক্যারিবিয়ান জ্যাসন হোল্ডারও। আছেন পাকিস্তানের সোহেল তানভির, খালিদ লতিফ, শাহজিব হাসান ও ইমাদ ওয়াসিমের মতো পারফরমার। এছাড়াও সাম্প্রতিক সময়ে নজরকাড়া আফগানিস্তানের লেগ স্পিনার রশিদ খানকেও দলে নিয়েছেন তারা।

এদিকে বর্তমান বাংলাদেশ দলের একমাত্র টি-টোয়েন্টি স্পেশালিস্ট ধরা হয় সাব্বির রহমানকে। প্রথমবারের মতো এবার আইকন ক্রিকেটার হয়েছেন তিনি। আর আইকন হয়ে ঘরের দলেই খেলার সুযোগ পেয়েছেন তিনি। তবে রাজশাহী কিংসের সেরা সংগ্রহ হয়ে থাকছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ক’দিন আগেও অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়ক হিসেবে পরিচিত মেহেদী হাসান মিরাজ এখন বাংলাদেশের জাতীয় তারকা। ইংলিশ বধের মূল নায়ক এবার রাজশাহীর মূলশক্তি। তবে বল হাতে আগুন ঝরানো এ তারকা এবার জ্বলে উঠতে চাইবেন ব্যাট হাতেও। সাব্বির-মিরাজের সঙ্গে রয়েছেন জাতীয় দলের উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান কাজী নুরুল হাসান সোহানও। আর ঘরোয়া ক্রিকেটে পরীক্ষিত রনি তালুকদার ও সালমান হোসেনকে দলে নিয়েছে তারা। আছেন ফরহাদ রেজা, রকিবুল হাসান, আবুল হাসান রাজু ও নাজমুল ইসলাম অপুর মতো ঘরোয়া ক্রিকেটে আলো ছড়ানো ক্রিকেটাররা। এছাড়া পেসার হান্ট থেকে উঠে আসা এবাদত হোসেনও।

বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অধিনায়ক ড্যারেন স্যামিকে দলে নিয়েছে তারা। এছাড়াও পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ সামিকেও অন্তর্ভুক্ত করেছে তারা। শ্রীলঙ্কান দুই ক্রিকেটার মিলিন্দা সিরিবর্ধনে ও উপল থারাঙ্গাও খেলবেন এ দলে। ইংল্যান্ডের অলরাউন্ডার সামিত প্যাটেল আছেন দলটিতে।

দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে খুলনা টাইটান্সের মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, শুভাগত হোম ও শফিউল ইসলামদের সামনে প্রতিপক্ষ হিসেবে রংপুর রাইডার্সকে আপাত দৃষ্টিতে একটু বেশিই হেভিওয়টে বলে মনে হচ্ছে। শহিদ আফ্রিদি, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ মিঠুন নাইম ইসলাম, শারজিল খানের মতো ব্যাটসম্যানরা দাঁড়িয়ে গেলে তাদের রানের চাকা সামাল দেয়াটা খুলনা টাইটান্সের জন্য কঠিনই হয়ে দাঁড়াবে!

Print Friendly, PDF & Email