বিপিএল ফুটবলে আরামবাগের দারুণ জয়

স্পোর্টস লাইফ, প্রতিবেদক প্রথমে পিছিয়েই পড়েছিল আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। উত্তর বারিধারাও খেলছিল উজ্জীবিত ফুটবল। এমন একটি অবস্থা থেকে খেলায় ফিরল দেশের ফুটবলের অন্যতম পুরোনো নাম আরামবাগ।

কেবল খেলায় ফেরা নয়, ম্যাচের শেষ দিকে আরও একটি গোলে চট্টগ্রাম পর্বটা তারা শেষ করল দারুণ এক জয়ে।

তারপরও খুশি নন কোচ সাইফুল বারি টিটু! ম্যাচ শেষে বললেন, পরিকল্পনা অনুযায়ী খেলতে পারেনি তাঁর দল। লিগের সবে শুরু। ফেডারেশন কাপে দলের খেলোয়াড়দের অসাধারণ পারফরম্যান্সই সাইফুল বারির প্রত্যাশাটাকে ওপরে তুলে দিয়ে থাকবে হয়তো।

তবে উত্তর বারিধারার বিপক্ষে আরামবাগ যা খেলেছে, সেটাতে আনন্দিত হওয়ার যথেষ্ট কারণই খুঁজে পাবেন জাতীয় দলের সাবেক এই মিডফিল্ডার।

সেটা মনে করেই খুশির ব্যাপারটা প্রকাশ করলেন তিনি, ‘লিগে প্রথম জয় পেলাম। অবশ্যই আমি খুশি। তবে যে ধরনের পরিকল্পনা সাজিয়েছিলাম, ছেলেরা মাঠে সেটির প্রয়োগ ঠিকমতো করতে পারেনি।’

খেলার ১৯ মিনিটেই ঝলক দেখিয়েছিল বারিধারা। শেখ রাসেলের বিপক্ষে দুর্দান্ত জয়ের পর শেখ জামালের জালে ৩ গোল করা বারিধারাকে এগিয়ে দিয়েছিলেন দলের অন্যতম পুরোনো খেলোয়াড়, ঘরের ছেলে সেন্টু চন্দ্র সেন। তবে লিডটা বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেনি বারিধারা।

২৭ মিনিটে আরামবাগের অধিনায়ক কেস্টার আকন দুর্দান্ত এক ফ্রিকিকে দলকে সমতায় নিয়ে আসেন। ৮০ মিনিটে এই কেস্টারই দ্বিতীয় গোলে আরামবাগকে এগিয়ে নেন জয়ের পথে।

বারিধারার কোচ রাশেদ পাপ্পু এই হারে হতাশ হলেও দলের খেলোয়াড়দের ওপর আস্থা বেশ, ‘আজ কিন্তু আমার দল ভালোই খেলেছে। কিন্তু সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে পারিনি বলেই ম্যাচটা হেরেছি। রক্ষণের ভুলও আজকের হারের বড় একটা কারণ।’

Print Friendly, PDF & Email