বিহারী-অশ্বিনের ব্যাটিং দৃঢ়তায় ম্যাচ বাঁচাল ভারত

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কমধ্যাহ্ন বিরতির পরে পঞ্চম উইকেট হিসেবে জশ হ্যাজলউডের বলে বোল্ড হয়ে যখন দেয়াল হয়ে থাকা চেতশ্বর পূজারা সাজঘরে ফিরছেন, তখন ভারতের রান ২৭২। জয়ের পাল্লাটা ঝুঁকেছিল অস্ট্রেলিয়ার দিকে।

কিন্তু ইনিংসের শেষ ৪৪.৩ ওভারে ভারতের বাকি ৫ উইকেট নিতে পারলেন না অজি বোলাররা। হনুমা বিহারী ও রবিচন্দ্রন অশ্বিনের ব্যাটিং দৃঢ়তায় তৃতীয় টেস্ট বাঁচিয়েছে সফরকারীরা। দিন শেষের আগে ড্র মেনে নিয়েছে দু’দল।  

৪০৭ রানের লক্ষ্যে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে ৫ উইকেটে ৩৪৩ রান করে ভারত। এর আগে সফরকারীরা প্রথম ইনিংসে অলআউট হয় ২৪৪ রানে। স্টিভেন স্মিথের সেঞ্চুরিতে অস্ট্রেলিয়া প্রথম ইনিংসে করে ৩৩৮ রান। স্বাগতিকরা দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে ৬ উইকেটে ৩১২ রানে।  

সোমবার (১১ জানুয়ারি) ভারত সিডনি টেস্টের পঞ্চম দিন শুরু করে ২ উইকেটে ৯৮ রান নিয়ে। দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে আগের দিনেই ম্যাচটি জমানোর আভাস দিয়েছিল স্বাগতিকরা। তবে শেষদিনের শুরুতে নাথান লায়নের বলে সাজঘরে ফেরেন আজিঙ্কা রাহানে (৪)। অধিনায়ককে হারানোর পরপরই উইকেটরক্ষক ঋষভ পন্তকে নিয়ে দারুণ এক জুটি গড়েন পূজারা।  

দু’জনের ১৪৮ রানের জুটি ভাঙেন লায়ন। অজি স্পিনারের জাদুতে সেঞ্চুরি বিসর্জন দেন পন্ত। ভারতীয় উইকেটরক্ষকের ১১৮ বলে ৯৭ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ১২ চার ও ৩ ছয়ে। এরপর মধ্যাহ্ন বিরতিতে থেকে এসে আরেকটি ধাক্কা খায় টিম ইন্ডিয়া। ২০৫ বলে ১২ চারে ৭৭ রান করে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন পূজারা। তার আগে ভারতের ১১তম ব্যাটসম্যান হিসেবে টেস্টে ৬ হাজার রানের মাইলফলকে পা রাখেন তিনি।

পন্ত-পূজারার ব্যাটিংয়ে জয়েরও স্বপ্ন দেখছিল ভারত। কিন্তু তাদের বিদায়ের পর ম্যাচ ঝুঁকে পড়ে অজিদের দিকে। তবে স্বাগতিক বোলারদের হতাশ করে দলকে ড্রয়ের দিকে নিয়ে যান দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান বিহারী-অশ্বিন। শেষের ২৫৮ বলে মাটি কামড়ে পড়ে থেকে দু’জনে গড়েন ৬২ রানের জুটি। তার মধ্যে ১৬১ বলে ৪ চারে ২৩ রান করেছেন বিহারী। অন্যদিকে ১২৮ বলে ৭ চারে ৩৯ রান করেন অশ্বিন।  

অস্ট্রেলিয়াকে ডুবিয়েছে মূলত ক্যাচ মিস। শেষদিনে ৪টি ক্যাচ মিস করেছে স্বাগতিকরা। তারমধ্যে ৩টি ক্যাচ গ্লাভসবন্দী করতে পারেননি অধিনায়ক-উইকেটরক্ষক টিম পেইন।  

সিডনি টেস্ট ড্র করার পথে এই নিয়ে চতুর্থ ইনিংসে পঞ্চমবারের মতো সর্বোচ্চ ১৩১ ওভার ব্যাট করলো ভারত। এছাড়া এশিয়ান দল হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ড্র করার পথে চতুর্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ ওভার ব্যাট করলো তারা।  

প্রথম ইনিংসে ১৩১ এবং দ্বিতীয় ইনিংসে ৮১ রান নিয়ে ম্যাচ সেরা হয়েছেন স্মিথ। দু’দলের চার টেস্ট সিরিজে তৃতীয় ম্যাচ শেষে ১-১ ব্যবধান সমতায় আছে। আগামী ১৫ জানুয়ারি সিরিজের চতুর্থ ও শেষ টেস্টে ব্রিসবেনে লড়বে দু’দল।

Print Friendly, PDF & Email