বেশি রান করেও এমন দুর্ভাগ্যজনক হার

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ককতোটা দুর্ভাগ্য হলে প্রতিপক্ষের চেয়ে বেশি রান করেও হারতে হয়। তেমনটাই হলো বিরাট কোহলিদের সঙ্গে। বুধবার সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়ার থেকে বেশি রান করেও ৪ রানের হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় তাদের।

অস্ট্রেলিয়া সফরটা হার দিয়েই শুরু হলো ভারতের। ব্রিসবেনে অনুষ্ঠিত তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথমটিতে বৃষ্টি আইনে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৪ রানে হারে তারা। বৃষ্টিবিঘ্নিত এই ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার ১৫৮ রানের জবাবে ১৭ ওভারে ভারতের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৭৪। ৭ উইকেট হারিয়ে শেষ পর্যন্ত তারা ১৬৯ রান সংগ্রহ করতে পারে।

শেষ ওভার পর্যন্ত লড়াই করে কোহলির দল। জয় আসাটা অস্বাভাবিক ছিল না। শেশ ওভারে ভারত যখন ১৩ রানের সামনে দাঁড়িয়ে তখনও তাদের হাতে ৫ উইকেট। টি-টোয়েন্টিতে মোটেই কঠিন কিছু নয়।

তবে মার্কাস স্টয়নিস তার এই ওভারটি দারুণভাবে নিয়ন্ত্রণ করেন। রান দেন মাত্র ৮। আর খুব কাছে এসেও ভারত বঞ্চিত হয় জয় থেকে। শেষ ওভারের প্রথম চার বলেই ভারত হারায় ২ উইকেট। রান পায় মাত্র ২। আর শেষ দুই বলে ৬ রান তুললেও আর লাভ হয়নি।

শুরুটা ভালোই ছিল কোহলিদের। ১০ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে তুলে ফেলে ৯৩ রান। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আর পেরে উঠল না।

ওপেনিংয়ে রোহিত শর্মাকে সঙ্গে নিয়ে ২৫ বলে ৩৫ রানের জুটি গড়েন ধাওয়ান। রোহিত ৮ বলে ৭ রান করে ফেরেন। লোকেশ রাহুল ১২ বলে ১৩ রানে ও ৮ বলে ৪ রানে অধিনায়ক কোহলি। এক উইকেটে ৮৪ রানে থাকা ভারত ১০৫ রানে পৌঁছাতে হারিয়ে ফেলে ৪ উইকেট।

৪২ বলে ১০ বাউন্ডারি আর ২ ছক্কায় ৭৬ রান করে আউট হন ধাওয়ান। শেষ ৪ ওভারে ৬ উইকেটে ভারতের প্রয়োজন ৬০। শেষ তিন ওভারে প্রয়োজন ৩৫। সেটাই শেষ ওভারে গিয়ে দাঁড়ায় ১৩তে। 

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ২টি করে উইকেট নেন অ্যাডাম জাম্পা আর মার্কাস স্টয়নিস। ম্যাচ সেরার পুরস্কারও ওঠে জাম্পার হাতে।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ব্যাটিংয়ে ঝড়টা শুরু করেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ২৪ বলে ৪ ছক্কায় ৪৬ রান করেন তিনি। ক্রিস লিন ২০ বলে করেন ৩৭। তবে মাঝ পথে বৃষ্টি নেমে ছন্দ পতন ঘটায় ম্যাচের। আর এই বিরতিতে ম্যাচ ১৭ ওভারে নেমে আসে। শেষ পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে বেশি রান তুলেও হেরে যায় ভারত। 

Print Friendly, PDF & Email