বোল্ট আছেন বোল্টেই!‌

স্পোর্টস লাইফডেস্ক : ‘‌আভি তো পার্টি শুরু হুই হ্যায়.‌.‌.‌’‌। মেলবোর্নে পা রেখেই মনে মনে বোধহয় বলে ফেলেছিলেন নিজেই নিজেকে। তাই তো মেলবোর্নের শহরতলী ডকল্যান্ডে ‘‌আলুব্রা নাইটক্লাবে’‌ রাতভর পার্টি করলেন উসাইন বোল্ট।

মেলবোর্নে রাত দশটায় পৌঁছেই তিনি ছুটেছিলেন ওই নাইটক্লাবে। সেখানে প্রথমটায় কেউ বোঝেননি বিশ্বের দ্রুততম আছে ডান্স ফ্লোরে। কিন্তু খানিক বাদে মঞ্চে ‘‌ডি জে’‌–এর সঙ্গে যোগ দিতে, সবাই চিনে ফেলেন। তারপর একসময় ‘‌ডি জে’‌–এর ভূমিকা খোদ বোল্টই নিয়ে বসেন।

নাইটক্লাবে হাজির সব্বাই চুটিয়ে উপভোগ করেন বোল্টের সঙ্গে। ‘‌ডি জে’‌ হরাইজোন নিজেই পরে সোশ্যাল নেটওয়ার্কে পোস্ট করেন, ‘‌উসাইন বোল্ট সব্বাইকে নাচিয়ে ছেড়েছে। মাতিয়ে দিয়েছে।’‌ সত্যি সত্যিই বোল্টকে দেখে বোঝা যাচ্ছিল, এতটুকু জড়তা নেই তাঁর মধ্যে।

মঞ্চে দাঁড়িয়ে কখনও মাইক্রোফোন তিনি হাতে তুলে নিয়েছেন। কখনও জোড়া পায়ে লাফিয়েছেন। কখনও নিজস্ব ভঙ্গিতেই সুরের তালে পা মিলিয়েছেন।

ভোর রাত পর্যন্ত চলে নাচ–গান। যদিও মেলবোর্ন বিমানবন্দরে পৌঁছে বোল্ট বলেছিলেন, তিনি শ্রান্ত ছিলেন। তবে নাইটক্লাবে তিনি যে মেজাজে ছিলেন, তাতে একটুও শ্রান্ত বা ক্লান্ত মনে হয়নি বোল্টকে। ‌‌

Print Friendly, PDF & Email