ভালেন্সিয়াকে উড়িয়ে ফাইনালে রিয়াল

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কএদেন আজারের পর গ্যারেথ বেল ও করিম বেনজেমাকে হারিয়ে ভঙ্গুর হয়ে পড়েছিল রিয়াল মাদ্রিদের আক্রমণভাগ। তবে মাঠের লড়াইয়ে তা তেমন একটা বোঝাই গেল না। দাপুটে পারফরম্যান্সে ভালেন্সিয়াকে উড়িয়ে স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনালে উঠেছে জিনেদিন জিদানের দল।

সৌদি আরবের কিং আব্দুল্লাহ স্পোর্টস সিটি স্টেডিয়ামে বুধবার সেমি-ফাইনালে ৩-১ গোলে জিতেছে স্পেনের সফলতম দলটি।

টনি ক্রুসের গোলে রিয়াল এগিয়ে যাওয়ার পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ইসকো। দ্বিতীয়ার্ধে অপর গোলটি করেন আরেক মিডফিল্ডার লুকা মদ্রিচ। শেষ দিকে ভালেন্সিয়ার একমাত্র গোলটি করেন দানি পারেহো।

লা লিগায় ভালেন্সিয়ার বিপক্ষে গত দুই ম্যাচে জিততে ব্যর্থ হয়েছিল রিয়াল। ভিন্ন প্রতিযোগিতায় এবার সেই দলকেই উড়িয়ে দিল জিদানের শিষ্যরা।

তারকা আক্রমণত্রয়ীকে হারিয়ে শক্তি হারালেও ম্যাচের শুরু থেকে আক্রমণাত্মক খেলতে থাকে রিয়াল। সাফল্যও পেয়ে যায় দ্রুত; পঞ্চদশ মিনিটে ক্রুসের নৈপুণ্য আর চতুরতায় এগিয়ে যায় তারা।

কর্নার পেয়েছিল রিয়াল, রক্ষণ সাজানোয় ব্যস্ত ছিলেন গোলরক্ষক জাওমে দুমেনেক। সেই সুযোগে দ্রুত শট নেন জার্মান মিডফিল্ডার। বল বাঁক খেয়ে ঠিকানা খুঁজে নেয়। শেষ মুহূর্তে ছুটে গিয়ে পাঞ্চ করে ফেরানোর চেষ্টা করেছিলেন গোলরক্ষক; কিন্তু ততক্ষণে দেরি হয়ে গেছে।

গোছালো আক্রমণে ৩৯তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ইসকো। মদ্রিচের শট প্রতিপক্ষের গায়ে লেগে ফেরার পর বল বুক দিয়ে নামিয়ে ডান পায়ের শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন স্প্যানিশ এই মিডফিল্ডার।

দুই মিনিট পর দ্বিতীয় গোল পেতে পারতেন ইসকো, কিন্তু তার হেড পোস্টে বাধা পায়। ফিরতি বল গোলমুখে পেয়ে গোলরক্ষকের বাধা এড়াতে পারেননি লুকা ইয়োভিচ।

৬৫তম মিনিটে আরেকটি দারুণ গোলে স্কোরলাইন ৩-০ করেন মদ্রিচ। ইয়োভিচের পাস ডি-বক্সে পেয়ে দুই ডিফেন্ডারের মধ্যে দিয়ে কোনাকুনি শটে দূরের পোস্ট দিয়ে ঠিকানা খুঁজে নেন ক্রোয়াট মিডফিল্ডার।

ওই গোলেই জয়-পরাজয়ের অনিশ্চয়তা অনেকটা কেটে যায়। বাকি সময়ে ভালেন্সিয়া বেশ চাপ তৈরি করে। ৭৫ ও ৭৯তম মিনিটে দুটি সুযোগও পেয়েছিল তারা, কিন্তু গোলরক্ষক থিবো কের্তোয়াকে ফাঁকি দিতে পারেনি।

যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে স্পট কিকে সান্ত্বনাসূচক গোলটি করেন পারোহো। ডি-বক্সে রিয়াল অধিনায়ক সের্হিও রামোসের হাতে বল লাগলে পেনাল্টির বাশি বাঁজান রেফারি।

নতুন আঙ্গিকে এবার দেশের বাইরে হচ্ছে স্প্যানিশ সুপার কাপ। চার দলের প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় সেমি-ফাইনালে বৃহস্পতিবার মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা ও আতলেতিকো মাদ্রিদ। ১২ জানুয়ারি হবে ফাইনাল। একই মাঠে হবে সবকটি ম্যাচ।

Print Friendly, PDF & Email