মঙ্গলবার ওমান যাচ্ছেন জিমিরা

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ক : এশিয়ান গেমস হকির বাছাই পর্বে বাংলাদেশ দারুণ সফল। গতবার চ্যাম্পিয়ন হওয়া লাল-সবুজের দলের এবারও লক্ষ্য শিরোপা। লক্ষ্য পূরণে মঙ্গলবার রাতে ওমান যাচ্ছেন মাহবুব হারুনের শিষ্যরা।

আগামী বৃহস্পতিবার শুরু হতে যাওয়া এই প্রতিযোগিতায় ৯টি দলের অংশ নেওয়ার কথা ছিল। তবে শেষ মুহূর্তে সরে দাঁড়িয়েছে ইন্দোনেশিয়া। ‘এ’ গ্রুপে বাংলাদেশের তিন সঙ্গী হংকং, থাইল্যান্ড ও আফগানিস্তান। ‘বি’ গ্রুপে স্বাগতিক ওমান খেলবে শ্রীলঙ্কা, চাইনিজ তাইপে ও কাজাখস্তানের বিপক্ষে।

বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ ৯ মার্চ, থাইল্যান্ডের বিপক্ষে। ১১ মার্চ দ্বিতীয় ম্যাচের প্রতিপক্ষ হংকং। আফগানিস্তানের সঙ্গে লড়াই ১৩ মার্চ। ১৫ মার্চ দুটি সেমিফাইনাল ও ১৭ মার্চ হবে ফাইনাল।

বাছাই পর্ব থেকে পাঁচটি দল খেলবে ইন্দোনেশিয়ায় অনুষ্ঠেয় এশিয়ান গেমসে। বাংলাদেশ অবশ্য ওমানে সবার ওপরে থেকেই ইন্দোনেশিয়ায় যেতে চায়। সোমবার সংবাদ সম্মেলনে সেই প্রত্যাশা উচ্চারিত হলো কোচ মাহবুব হারুনের কণ্ঠে, ‘পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে সবাই সুযোগ পেয়েছে। সিনিয়র-জুনিয়রদের সমন্বয়ে ভালোই হয়েছে আমাদের দল। আমরা বাছাই পর্বে সেরা হতে চাই। গতবার শিরোপা জিতেছিলাম, এবার সেই সাফল্য ধরে রাখতে চাই।’

ইন্দোনেশিয়া সরে দাঁড়ানোয় খুশিই হয়েছেন তিনি, ‘ ইন্দোনেশিয়া নাম প্রত্যাহার করে নেওয়ায় একদিক দিয়ে ভালোই হয়েছে। গ্রুপের তিনটি ম্যাচের আগে একদিন করে বিশ্রাম পাবো, এর ফলে খেলতে সুবিধা হবে। গ্রুপ পর্বে ভালো খেলে সেমিফাইনালে যেতে চাই, তারপর ফাইনালে উঠে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্য আমাদের। শিরোপার পথে স্বাগতিক ওমান আমাদের সবচেয়ে বড় বাধা, ওদের হারাতে চাই।’

অধিনায়ক রাসেল মাহমুদ জিমি স্মরণ করলেন কিছুদিন আগে প্রয়াত হকির সাবেক তারকা আব্দুর রাজ্জাক সোনা মিয়াকে। বাবা সম্পর্কে তিনি বললেন, ‘বাবা আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন বেশিদিন হয়নি। বাবাকে ছাড়া এই প্রথম কোনও আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় খেলতে যাচ্ছি। ট্রফি জিতে দেশে ফিরতে চাই। আমরা আত্মবিশ্বাসী, বাছাই পর্ব পেরিয়ে ইন্দোনেশিয়া যেতে পারবো।’

 

Print Friendly, PDF & Email