মোহনবাগানকে স্পনসর করবেন বলিউড বাদশা শাহরুখ খান?

স্পোর্টস লাইফডেস্ক : সদ্য কলকাতা লিগ হাতছাড়া হয়েছে মোহনবাগানের। শুধু তাই নয়, ডার্বিতে টিম নিয়ে মাঠে না আসা, টালিগঞ্জ অগ্রগামীর সঙ্গে খেলা অসম্পূর্ণ রেখেই মাঠ ছেড়ে যাওয়া সব মিলিয়ে গত কয়েকদিন ধরে জেরবার বাগানশিবির। এছাড়াও বেশ কিছুদিন থেকেই শোনা যাচ্ছিল, বাগানের আর্থিক পরিকাঠামো টালমাটাল।

২০১৪ সাল পর্যন্ত বিজয় মালিয়ার মালিকানায় ডিয়েগো গ্রুপের ‘ইউনাইটেড স্পিরিটস’ স্পনসর করত মোহনবাগানকে। বছরে ৫ কোটি টাকার স্পনশরশিপ পেত সবুজমেরু‌ন ব্রিগেড। তবে এই সংস্থার আর্থিক অবস্থায় ভাঙন দেখা দিলে তারা স্পনশরশিপ না করার সিদ্ধান্ত নেয়। তার পর থেকেই নতুন স্পনশরশিপের সন্ধানে উঠে পড়ে লাগে ক্লাব।

তবে শোনা যাচ্ছে, স্পনশরশিপের জন্য মোহনবাগান এবার বিমানসংস্থা ‘এতিহাদ’-এর সঙ্গে কথা বলছে। সংযুক্ত আরব আমির শাহি দ্বিতীয় বৃহত্তম বিমানসংস্থা হল এতিহাদ। একটি ক্রীড়া সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, এই এয়ারলাইনসের সঙ্গে ইতিমধ্যেই কথা বলা হয়েছে ক্লাবের তরফ থেকে।

মোহনবাগান ক্লাবের দায়িত্ব যদি বিমানসংস্থা এতিহাদের আওতায় যায়, তবে ক্লাব কর্তৃপক্ষ শান্তির নিশ্বাস ফেলবেন, তা বলাই বাহুল্য। তবে বিমানসংস্থার তরফ থেকে এখনও কোনও সবুজ সংকেত পাওয়া যায়নি।

শোনা যাচ্ছে, মোহনবাগানের দায়িত্ব নিতে পারেন বলিউড বাদশা শাহরুখ খান-ও। তবে তিনিও এই মুহূর্তে কিছু জানাননি এ বিষয়ে। একটি আন্তর্জাতিক স্পোর্টস পোর্টাল, ‘গোল ডট কম’-এ প্রকাশিত সংবাদ থেকে জানা গিয়েছে, বলিউডের এই অভিনেতা কলকাতার ফুটবল ক্লাবগুলি সম্পর্কে বিশেষ আগ্রহী। সবুজমেরুন শিবিরের সঙ্গে একদফা কথাও হয়েছে বলে সূত্রের খবর।

কলকাতার সঙ্গে শাহরুখের খেলাধুলোর যাবতীয় সম্পর্ক গড়ে উঠেছে ২০০৮ সাল থেকে। সেই বছর প্রথম কলকাতা নাইট রাইডার্সের দায়িত্ব নেন কিং খান। ২০১২ এবং ২০১৪ সালে কলকাতা আইপিএল জেতার পরে সেই সম্পর্ক আরও দৃঢ় হয়।  তাঁর খেলাধুলোর প্রতি আগ্রহের কথা ভক্তদের অজানা নয়। তিনি নিজেও হকি এবং ফুটবল খেলেছেন। এও জানা যে তিনি দেশের কোনও একটি ফুটবল ক্লাবের দায়িত্ব নেওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন অনেকদিন আগেই।

তিনি বলেছিলেন, ‘আমি আইএসএলে অংশগ্রহণ করতে চেয়েছিলাম এবং চেয়েছিলাম দেশের একটি ফুটবল ক্লাবের দায়িত্ব নিতে। কিন্তু নানা কারণবশত সেটা হয়ে ওঠেনি।’ এবার তাঁর ইচ্ছের খাতায় মোহনবাগানের নাম উঠবে কিনা, সেটা সময়ই বলবে।

Print Friendly, PDF & Email