মোহামেডানের হার, জিতলো রূপগঞ্জ-শেখ জামাল

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ক : ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) দশম রাউন্ডে শুক্রবারের (১৬ মার্চ) তিন ম্যাচে জয় পেয়েছে খেলাঘর, শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব ও লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। মোহামেডানকে খেলাঘর, কলাবাগানকে শেখ জামাল ও রূপগঞ্জ মাঠ ছাড়ে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে হারিয়ে।

রাউন্ড রবিন পর্বে আর একটি করে ম্যাচ বাকি। আবাহনীর পর সুপার লিগ (সুপার সিক্স) রাউন্ড নিশ্চিত করেছে রূপগঞ্জ। ১২ দলের পয়েন্ট টেবিলে দ্বিতীয় অবস্থানে তারা। ১০ ম্যাচ শেষে আবাহনীর সমান ৭ জয় ও ৩ হারে ১৪ পয়েন্ট হলেও পিছিয়ে নেট রান রেটে।

১০ পয়েন্টে ৬ নম্বরে শেখ জামাল। ২ পয়েন্ট এগিয়ে চতুর্থ অবস্থানে খেলাঘর। আবাহনী –রূপগঞ্জের সঙ্গে সুপার লিগ নিশ্চিত তিনে থাকা প্রাইম দোলেশ্বরের (১৩)। ৯ পয়েন্ট নিয়ে ৯-এ মোহামেডান। ১ পয়েন্ট পিছিয়ে দশে ব্রাদার্স। দুই জয়ের বিপরীতে ৮ ম্যাচেই হেরে কলাবাগান একেবারে তলানিতে। আগেই ছিটকে পড়া কলাবাগানের পর সুপার লিগ স্বপ্ন শেষ হয়ে গেছে ব্রাদার্সের।

মিরপুরে মোহামেডানকে ১৮১ রানে (৪৫.৪ ওভার) অলরাউট করে সহজ লক্ষ্যটা ৫১ বল ও ৬ উইকেট হাতে রেখে টপকে যায় খেলাঘর। ৭৬ রান করেন অমিত মজুমদার। ৫৪ রানে অপরাজিত থাকেন ভারতের অশোক মেনারিয়া। দু’টি করে উইকেট নেন গুরিন্দার সিং ও কাজী অনিক। মোহামেডানের হয়ে ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ ৫৫ রান করেন জনি তালুকদার। চারটি উইকেট দখলে নেন খেলাঘরের তরুণ বাঁহাতি স্পিনার তানভীর ইসলাম।

ফতুল্লায় শেখ জামালের ২৬৩ (৪৯.৫ ওভারে অলআউট) রানের জবাবে ৪৭.৩ ওভারে ১৯০-এ গুটিয়ে যায় কলাবাগান। অর্ধশতক হাঁকান তাইবুর রহমান ও মুক্তার আলী। চারটি উইকেট শিকার করেন ইলিয়াস সানি। শেখ জামালের হয়ে রাকিন আহমেদ ৭১, পিনাস ঘোষ ৪৯ রান করেন। ৬১ রানে অপরাজিত থাকেন তানভীর হায়দার। তিনটি উইকেট নেন আবুল হাসান রাজু।

বিকেএসপিতে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে ১৭৮ রানে (৪৮.১ ওভার) গুটিয়ে দিয়ে ৭৫ বল হাতে রেখে সাত উইকেটের দাপুটে জয় তুলে নেয় রূপগঞ্জ। আব্দুল মজিদ ৯৪ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন। ব্রাদার্সের সর্বোচ্চ স্কোরার ওপেনার মিজানুর রহমান (৬৩)। চারটি করে উইকেট লাভ করেন মোহাম্মদ শহীদ ও বাঁহাতি স্পিনার আসিফ হাসান।

Print Friendly, PDF & Email