রিও-তে নামার দিনেই চার বছরের জন্য নিষিদ্ধ হলেন যাদব! কিন্তু কেন?

স্পোর্টস লাইফডেস্ক : শুক্রবারই রিও-তে কুস্তির ৭৪ কেজি বিভাগে প্রথম লড়াইতে নামার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু রিও-তে অলিম্পিক্সে ভারতের জোড়া পদক নিশ্চিত করার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই দুঃসংবাদটা এল। চার বছরের জন্য ভারতীয় কুস্তিগীর নরসিংহ যাদবকে ডোপিংয়ের দায়ে নির্বাসিত করল কোর্ট অফ আর্বিট্রেশন ফর স্পোর্টস বা ক্যাস।

ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সি বা ওয়াডার আবেদনেই এই সিদ্ধান্তের কথা জানাল তারা। নরসিংহের এই শাস্তি অবিলম্বে কার্যকর করা হয়েছে। ফলে রিও-তে রিংয়ে নামার বদলে শুক্রবারই গেমস ভিলেজ ছাড়তে হবে নরসিংহকে।

রিও-তে যাওয়ার আগে থেকেই নরসিংহকে নিয়ে বিতর্ক চলছে। ২৫ জুন এবং ৫ জুলাই হওয়া ডোপ টেস্টের রিপোর্টে নরসিংহের মূত্রের নমুনায় নিষিদ্ধ স্টেরয়েড পাওয়ার পরেও তাঁকে রিও যাওয়ার ছাড়পত্র দিয়েছিল জাতীয় অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সি বা নাডা। নরসিংহের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করা হয়েছে বলে বরাবরই তাঁর পাশে ছিল জাতীয় কুস্তি ফেডারেশন। সেই তত্ত্বেই সিলমোহর দিয়েছিল নাডা।

সুশীল কুমারের সঙ্গে নরসিংহের রিও যাওয়া নিয়ে দ্বৈরথকেই পরোক্ষে এই ঘটনার জন্য দায়ী করা হয়েছিল। নাডা ছাড়পত্র দিলেও তিন সপ্তাহ আগে ওয়াডা জানায়, নরসিংহের শাস্তির জন্য কোর্ট অফ আর্বিট্রেশনে আবেদন জানিয়েছে তারা। ভারতীয় সময় বৃহস্পতিবার গভীর রাতে শেষ পর্যন্ত নিজেদের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেয় কোর্ট অফ আর্বিট্রেশন।

নির্দেশে বলা হয়, নরসিংহ যে উদ্দেশপ্রণোদিত ভাবে ডোপিং করেননি, অথবা তিনি যে চক্রান্তের শিকার, তার স্বপক্ষে যথেষ্ট প্রমাণ পাওয়া যায়নি। সেই কারণেই তাঁকে চার বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হল।

ভারতীয় কুস্তি ফেডারেশন এবং জাতীয় অলিম্পিক্স ফেডারেশনের অবশ্য দাবি, হাতে সময় কম থাকা সত্ত্বেও কোর্ট অফ আর্বিট্রেশনে নরসিংহের সমর্থনে নিজেদের বক্তব্য যথেষ্ট জোরালোভাবেই পেশ করা হয়েছিল। কিন্তু কোনও যুক্তিই মানতে চায়নি কোর্ট অফ আর্বিট্রেশের অ্যাড হক কমিটি।

এই সিদ্ধান্তের পরে স্বভাবতই বিপর্যস্ত নরসিংহ যাদব। কারণ চার বছরের শাস্তি মানে তাঁর কেরিয়ারই বড়সড় প্রশ্নের মুখে পড়ে গেল। রিও-তে গিয়ে প্রথম লড়াইতে নামার আগে ওজন এবং মেডিক্যাল টেস্টে ছাড়পত্র পেয়ে লড়াইতে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন নরসিংহ। কিন্তু স্বপ্নভঙ্গ হওয়ার পরে শুক্রবার সকালেই গেমস ভিলেজ ছাড়তে হবে নরসিংহকে।

Print Friendly, PDF & Email