শনিবার বাংলাদেশ যুব গেমসের বর্ণাঢ্য উদ্বোধন, জেনে নিন কি কি থাকছে

স্পোর্টস লাইফ, প্রতিবেদক নতুনের আহবানে শনিবার বাংলাদেশ যুব গেমসের চূড়ান্ত পর্বের বর্ণাঢ্য উদ্বোধন। প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে বাছাইকৃত সেরা তরুন ক্রীড়াবিদদের এই আসরের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন ক্রীড়াপ্রেমী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৭টা ২১ মিনিটে উদ্বোধন হলেও অনুষ্ঠানের কার্যক্রম শুরু হবে বিকেল থেকেই। বাংলাদেশ টেলিভিশন ও মাছরাঙা টেলিভিশন সরাসরি সম্প্রচার করবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি।

বিকেল চারটায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে প্রবেশের সবগুলো গেট খোলা হবে। সাড়ে ৫টা পর্যন্ত দর্শকরা প্রবেশ করতে পারবেন স্টেডিয়ামে। এরপরেই শুরু হবে ডিজে শো এবং বিভিন্ন সময়ে দেশে ও বিদেশে বাংলাদেশের খেলাধূলার সচিত্র প্রতিবেদন। ৩০ মিনিটের এই অনুষ্ঠান শেষে সন্ধ্যা ৬টা থেকে ৪৫ মিনিট থাকবে নামাযের বিরতি।

৬টা ৪৫ মিনিটে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে প্রবেশ করবেন মাননীয় প্রধানন্ত্রী। এরপরেই সন্ধ্যা ৬টা ৫০ মিনিটে বেজে উঠবে জাতীয় সঙ্গীত। ৬টা ৫৩ মিনিটে প্রদর্শণ করা হবে ‘এক ঝলকে বাংলাদেশ যুব গেমস’ এর ডকুমেন্টারীর প্রদর্শনী। এই প্রদর্শনের সঙ্গে সঙ্গে মাঠে প্রবেশ করবেন আট বিভাগের ক্রীড়াবিদরা। ৭টা ১১ মিনিটে আগত অতিথিদের বক্তব্য শেষে ৭টা ২১ মিনিটে উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

৫ মিনিট স্থায়ীত্বকালের এই উদ্বোধনের পরপরই মশাল প্রজ্বলন করা হবে। যুব গেমসের চূড়ান্ত পর্বের মশাল প্রজ্বলন করবেন ম্যানচেস্টার কমনওয়েলথ গেমসের সোনাজয়ী ও দেশসেরা শ্যুটার আসিফ হোসেন খান। ৭টা ৩০ মিনিটে গেমসের থিম সংয়ের প্রদর্শনী এরপর ধীরে ধীরে মাঠ ত্যাগ করবেন ক্রীড়াবিদরা। রাত ৭টা ৪৫ মিনিটে শুরু হবে আট মিনিটের মাসকট প্যারেড।

৭টা ৫৩ মিনিটে স্টেজ পারফরমারদের নাচ ও গান পরিবেশন হবে। ১৫ মিনিটের এই অনুষ্ঠানে দেশসেরা কণ্ঠ ও নৃত্য শিল্পীরা অংশ নেবেন। ৮টা ৮ মিনিটে বাংলাদেশের অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যত নিয়ে প্রদর্শিত হবে ডিসপ্লে। ২৫ মিনিটের এই অনুষ্ঠান শেষে প্রদর্শিত হবে আকর্ষনীয় লেজার শো। ৮টা ৩৩ মিনিটে লেজার শো, পাইরো এবং ফায়ার ওয়ার্কস প্রদর্শনী শেষে ৮টা ৪০ মিনিটে সমাপ্তি ঘটবে বাংলাদেশ যুব গেমসের চূড়ান্ত পর্বের বর্ণাঢ্য উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের।

জেলা ও বিভাগ পেরিয়ে প্রথম বাংলাদেশ যুব গেমসের চূড়ান্ত পর্ব এখন দোরগোড়ায়। গত বছরের ১৮ ডিসেম্বর ভবিষ্যতের ক্রীড়াবিদ খুঁজে বের করার যে কার্যক্রম শুরু হয়েছিল, চূড়ান্ত পর্বের মধ্য দিয়েই তা শেষ হচ্ছে। যাচাই-বাছাইয়ের পর চূড়ান্ত পর্বে ২১টি ডিসিপ্লিনে ২,৬৬০ জন ক্রীড়াবিদ অংশ নিচ্ছেন। এই পর্বে ১৫৯টি ইভেন্টে ১,১১৪টি পদকের জন্য লড়বেন করবেন তরুন ক্রীড়াবিদরা।

৩৪২টি স্বর্ণ,৩৪২টি রৌপ্য এবং ৪৩২টি ব্রোঞ্জপদক থাকছে ২১টি ডিসিপ্লিনে।চ‚ড়ান্ত পর্বের ডিসিপ্লিনগুলো হল- অ্যাথলেটিক্স, সাঁতার, ফুটবল, কাবাডি, বাস্কেটবল, ভলিবল, হ্যান্ডবল, হকি, টেবিল টেনিস, ভারোত্তোলন, কুস্তি, উশু, শুটিং, আরচারি, ব্যাডমিন্টন, বক্সিং, দাবা, জুডো, কারাতে, তায়কোয়ান্ডো ও স্কোয়াশ।

Print Friendly, PDF & Email