শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার ওয়ানডে শুরু

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্কদক্ষিণ আফ্রিকার ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ প্রস্তুতি ও এবি ডি ভিলিয়ার্স পরবর্তী অধ্যায় শুরু হলো দুর্দান্ত জয়ে। রবিবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে ৫ উইকেটে জিতেছে প্রোটিয়ারা। কাগিসো রাবাদা ও তাবরাইজ শামসির বোলিং নৈপুণ্যে ৫ ম্যাচের সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেল তারা।

রনগিরি ডাম্বুলা আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৩৪.৩ ওভারে শ্রীলঙ্কা অলআউট হয় ১৯৩ রানে। জবাবে ৫ উইকেট হারিয়ে মাত্র ৩১ ওভারে ১৯৬ রান করে জিতে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

ম্যাচ মূলত শেষ হয়ে যায় প্রথম ৯ ওভারেই। রাবাদার বোলিং তোপে মাত্র ৩৬ রান করতে গিয়েই ৫ উইকেট হারায় লঙ্কানরা। ষষ্ঠ উইকেটে থিসারা পেরেরা ও কুশল পেরেরা ৯২ রানের জুটি না গড়ে ওই বিপদ সামলান। কিন্তু শামসির স্পিনে অসহায় হয়ে পড়ে তাদের লোয়ার অর্ডার। থিসারাকে ৪৯ রানে কুইন্টন ডি ককের ক্যাচ বানান এই প্রোটিয়া স্পিনার।

তারপর কুশল ৮১ রানের সেরা ইনিংস খেললেও দলীয় স্কোর দুইশ ছাড়াতে পারেননি। রাবাদা ৮ ওভারে ৪১ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন। ৮.৩ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা শামসি।

লক্ষ্য ছোট হলেও শুরুতে ভড়কে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। পঞ্চম ওভারে পরপর হাশিম আমলা ও অ্যাইডেন মারক্রামকে ফিরিয়ে আকিলা ধনঞ্জয়া হ্যাটট্রিকের সুযোগ তৈরি করেন। তবে ডি কক ও ফাফ দু প্লেসির ৮৬ রানের জুটি সহজ জয়ের পথ দেখায়। যদিও দুজনই হাফসেঞ্চুরি না হওয়ার আক্ষেপে পুড়েছেন। ডি কক ও দু প্লেসি খেলেন সমান ৪৭ রানের ইনিংস।

জেপি দুমিনির ঝড় দক্ষিণ আফ্রিকার জয়কে আরও দ্রুত করে। ৩২ বলে ৬ চার ও ২ ছয়ে ৫৩ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি।

শ্রীলঙ্কার পক্ষে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন আকিলা। আগামী ১ আগস্ট একই ভেন্যুতে দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই দল। 

Print Friendly, PDF & Email