সাহসের জোরে কিংবদন্তি জিমন্যাস্ট ‘কিং কোহেই’!

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ক : পুরুষ জিমন্যাস্টিক্স বলতেই বোঝায় যেন ‘কিং কোহেই’। কোহেই উচিমুরার সাফল্যের গল্পটা অবিশ্বাস্য। ২৭ বছরের এই জাপানি কিংবদন্তি রিও অলিম্পিকেও সেরা। পুরুষ অল-অ্যারাউন্ড এককে সোনা জিতে ধরে রেখেছেন শ্রেষ্ঠত্ব। বিশ্ব ইতিহাসের ‘গ্রেটেস্ট জিমন্যাস্ট’ ধরা হয় যাকে তার সাফল্যের রহস্য আসলে ‘সাহস’! রিওতে পুরুষদের দলগত জিমন্যাস্টিক্সের সোনা জিতিয়েছেন দলকে।

২০০৪ এথেন্স অলিম্পিকের পর আবার এই সোনাটি জাপানের। তারপর ষষ্ঠ দিনে অল-অ্যারাউন্ড একক সোনাটি জিতলেন। ৪৪ বছর পর টানা দুই অলিম্পিকে এই ইভেন্টের সোনা জয়ের রেকর্ড গড়লেন কোহেই। আগের রেকর্ডটিও এক জাপানির। সাতটি অলিম্পিক পদক এখন তার। অল-অ্যারাউন্ড, দলগত, ফ্লোর এক্সারসাইজে। তিনটি সোনা। চারটি রুপা। ১৯টি বিশ্ব পদক তার।

অল-অ্যারাউন্ড, দলগত, ফ্লোর, হাই বার ও প্যারালাল বারে। এর ১০টি সোনা। এক অলিম্পিকে পুরুষ-নারী মিলিয়ে সব মেজর অল-অ্যারাউন্ড জেতা ইতিহাসের একমাত্র জিমন্যাস্ট তিনি। দুবার গড়লেন এই কীর্তি। ২০০৮ অলিম্পিকে অল-অ্যারাউন্ডে জিতেছিলেন রুপা। ২০০৯ থেকে এখন পর্যন্ত টানা ছয়বারের অল-অ্যারাউন্ড বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন তিনি। এবারের আসরে আরেকটি সোনা জেতার সুযোগ আছে।

কোহেই রিওতে প্রথমে খবর হলেন পোকেমন গোর জন্য ৫ হাজার ডলার বিল দিয়ে। আর এবার অল-অ্যারাউন্ডে শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখতে হারিয়েছেন ইউক্রেনের ২২ বছরের ওলেগ ভারনিয়েভকে। রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে কোহেইয়ের জয় ০.০৯৯ এ এগিয়ে থেকে। যুক্তরাজ্যের ম্যাক্স হোয়াইটলক জিতেছেন ব্রোঞ্জ। কিভাবে এই শেষ্ঠত্ব? সোনার পদকে চুমু খেয়ে কোহেইয়ের জবাব, “আমার কাছে ব্যাখ্যা নেই।

আসলে প্রচণ্ড সাহস ও প্রত্যয় এর পেছনে মনে হয়।” নিজেকে অবশ্য কিংবদন্তি মানেন না জিমন্যাস্টিক্স এর কিং। ৫ ফুট ৩ ইঞ্চি উচ্চতার কোহেই বলেন, “মাইকেল ফেলপস, উসাইন বোল্টের নাম সবাই জানে। কিন্তু কোহেই উচিমুরা? সে আবার কে?” টোকিওতে বসছে আগামী অলিম্পিক। ২০১২ সালে বিয়ে করা কোহেইয়ের দুই মেয়ে। ততদিনে মেয়েরা কিছুটা বুঝতে শিখবে। কোহেই ভাবেন, “আমি ওখানে অংশ নিতে চাই। ততদিনে আমার মেয়েরা একটু বড় হবে। আশা করি দেখাতে পারবো যে তাদের বাবা কি করতে পারে।”

Print Friendly, PDF & Email