স্মিথ-ওয়ার্নারদের শাস্তি কমানোর অনুরোধ

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ক : বল টেম্পারিং কাণ্ডে বড় ধরনের শাস্তিই পেলেন স্মিথ-ওয়ার্নার ও ব্যানক্রফ্টরা। তবে তাদের এই শাস্তি কমানো উচিৎ বলে মনে করে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার্স ইউনিয়ন। তাদের মতে, পূর্বের বল টেম্পারিং ইস্যুতে এতো বড় সাজা কখনো হয়নি।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে কেপটাউন টেস্টে টেম্পারিং কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত হন ওপরের তিন অজি ক্রিকেটার। পরে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারকে এক বছরের জন্য আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া ক্রিকেটে নিষিদ্ধ করে। আর ব্যানক্রফ্টকে নয় মাসের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়।

গত সপ্তাহে এ তিন জনকে দেশে ফেরানো হলে তারা আলাদা সংবাদ সম্মেলনে ক্ষমা চান ও নিজেদের ভুল স্বীকার করে নেন।

অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েশনের (এসিএ) প্রেসিডেন্ট গ্রেগ ডায়ার বলেন, ‘বিচার কখনো দ্বিধান্বিত ভাবে ছুটতে পারে।’ তিনি মনে করিয়ে দেন এর আগে এমন অপরাধের জন্য শাস্তি হিসেবে দুটি আন্তর্জাতিক ওয়ানডে নিষিদ্ধ করা হতো।‘এবারের এই শাস্তিটি একটি নজির সৃষ্টি করলো।’

আন্তর্জাতিক না হোক অন্তত ঘরোয়া ক্রিকেটে এই তিন ক্রিকেটারকে ফেরানোর দাবি করে এসিএ, ‘আমরা মনে করি এই ক্রিকেটারদের খুব দ্রুতই ঘরোয়া ক্রিকেটে ফেরানো হোক। এটা তাদের ভবিষ্যত ক্রিকেটের জন্য কাজে দেবে।’

এদিকে সমর্থকরা বিশ্বাস করে ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপ এবং ২০১৯ অ্যাশেজকে সামনে রেখে আঞ্চলিক ক্রিকেটে তাদের সুযোগ দেওয়া উচিৎ।

Print Friendly, PDF & Email