২০২১ সালে অলিম্পিক হবে তো? উত্তর খুঁজছেন আয়োজক কমিটির প্রধান

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ক : করোনা ভাইরাসের কারণে ২০২০ সালের টোকিও অলিম্পিক পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে ২০২১ সালে। কিন্তু ২০২১ সালেও কি অলিম্পিক আয়োজন সম্ভব? এই কোটি টাকা প্রশ্নের উত্তর নিজেও খুঁজে বেড়াচ্ছেন জাপানের অলিম্পিক আয়োজক কমিটির প্রধান ইয়োশিরো মোরি।

প্যান্ডেমিক না কাটলে নিজেও অলিম্পিকের আয়োজনের কোনও সম্ভাবনা দেখছেন না মোরি। তাঁর দাবি, এই এক বছরের মধ্যে যদি করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন কিংবা ওষুধ আবিষ্কার হয়, তাহলে টোকিওতে আগামী বছর অলিম্পিক সম্ভব। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতি যদি না বদলায় কিংবা যদি আরও খারাপের দিকে যায় তাহলে টোকিওতে আগামী বছরও অলিম্পিক আয়োজন সম্ভব নয় বলে এক সাক্ষাত্কারে জানিয়েছেন মোরি।

মোরি আশাবাদী যে ধীরে ধীরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে। তেমনই দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে অলিম্পিক করানোর ব্যাপারে রাজি নন মোরি। এই প্রশ্নের জবাবে মোরি জানিয়েছেন, ফাঁকা স্টেডিয়ামে খেলার আয়োজন করার বিষয় নিয়ে এখনও ভাবনাচিন্তা করা হয়নি। মোরির বক্তব্য, ফাঁকা স্টেডিয়ামে অলিম্পিকের আয়োজন করার থেকে, অলিম্পিক বাতিল করে দেওয়া ভাল।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ না হলে চলতি মাসের ২৪ তারিখ থেকে টোকিওতে শুরু হওয়ার কথা ছিল গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ, অর্থাত্ অলিম্পিক। কিন্তু বিশ্বজুড়ে মহামারির কারণে ২০২১ সালের জুলাই পর্যন্ত পিছিয়ে দিতে হয়েছে অলিম্পিক। সব ঠিকঠাক থাকলে আগামী বছর ২৩ জুলাই টোকিওতেই হবে অলিম্পিক।

দ্বিতীয় বিশ্বুযুদ্ধ চলাকালীন দুবার অলিম্পিক গেমস বাতিল করতে হয়েছিল। তারপর করোনাভাইরাসের কারণে এইপ্রথম এবছর অলিম্পিকের আয়োজন করা গেল না। টোকিওতে আগামী বছর অলিম্পিক হোক সেটা অবশ্য চাইছেন না খোদ জাপানের নাগরিকরাও!

জাপানে একটি সমীক্ষা চালিয়ে দেখা গিয়েছে যে চারজনের মধ্যে মাত্র একজন আগামী বছর অলিম্পিক আয়োজনের পক্ষে। বাকিরা অলিম্পিক বাতিল কিংবা পিছিয়ে দেওয়ার পক্ষে রায় দিয়েছেন। কারণ জাপানের মানুষরা এখনও মনে করেন যে আগামী বছরও করোনা থেকে রেহাই পাওয়া যাবে না।

Print Friendly, PDF & Email